ঢাকা , রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪ , ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জিহ্বা পরিষ্কার করা যে কারণে জরুরি

বাংলার জমিন ডেস্ক :
আপলোড সময় : ২৪-০৩-২০২৪ ০১:৫০:০৫ অপরাহ্ন
আপডেট সময় : ২৪-০৩-২০২৪ ০১:৫০:০৫ অপরাহ্ন
জিহ্বা পরিষ্কার করা যে কারণে জরুরি ফাইল ছবি
অনেকে ভাবেন, দাঁত নিয়মিত পরিষ্কার করলেই মুখের ভেতরের বাকি যত্নও নেওয়া হয়ে যায়। আলাদা করে আর কিছু পরিষ্কার করার প্রয়োজন নেই। তবে নিয়মিত জিহ্বা পরিষ্কার করা না হলে মুখে দুর্গন্ধ, মাড়ির সমস্যাসহ নানারকম অসুখ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই মুখের অভ্যন্তরীণ স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য আপনাকে নিয়মিত জিহ্বা পরিষ্কার করতে হবে। জিহ্বা পরিষ্কার না করলে পেটের সমস্যাসহ নানা অসুখ হতে পারে।


চলুন জেনে নেওয়া যাক নিয়মিত জিহ্বা পরিষ্কার যে কারণে জরুরী-

অন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে- প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর আপনাকে অবশ্যই জিহ্বা পরিষ্কার রাখতে হবে। এতে আপনার মুখে জমে থাকা ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া দূর হয়ে যাবে। যে কারণে শরীর সুস্থ রাখা সহজ হবে। এটি অন্ত্রের স্বাস্থ্যের জন্য জরুরি একটি কাজ। তাই নিয়ম মেনে এটি করতে হবে।

হালকা গরম পানিতে কুলকুচি- প্রতিদিন অন্তত দুইবার হালকা গরম পানিতে কুলকুচি করার অভ্যাস করুন। এই অভ্যাসের ফলে জিহ্বা পরিষ্কার হবে। জিহ্বা ভালোভাবে পরিষ্কার না করলে ব্যাকটেরিয়া পেটে চলে যেতে পারে। যেখান থেকে দেখা দিতে পারে শরীরের নানা রকম ক্ষতি। তাই এদিকে খেয়াল রাখুন।
আরও পড়ুন
নারীদের ত্রিশ পরবর্তী পুষ্টি ভাবনা

দুর্গন্ধ ও আলসার- জিহ্বা যদি নিয়মিত পরিষ্কার না করা হয় তাহলে মুখ থেকে দুর্গন্ধ বের হতে পারে এবং সেইসঙ্গে দেখা দিতে পারে আলসারের সমস্যাও। এর ফলে দেখতে পারে দীর্ঘমেয়াদী শারীরিক সমস্যাও। তাই মুখে দুর্গন্ধ ও আলসার দূর করার জন্য আপনাকে নিয়মিত জিহ্বা পরিষ্কার রাখতে হবে। এতে সুস্থ থাকা সহজ হবে।

তরল পরিষ্কারক ব্যবহার-
বাজারে বিভিন্ন প্রসিদ্ধ ব্র্যান্ডের তরল পরিষ্কারক পাওয়া যায়। যেগুলো দিয়ে কুলকুচি করলে তা সহজেই জিহ্বা পরিষ্কার করতে সাহায্য করে। প্রয়োজনে আপনি সেসব তরলও ব্যবহার করতে পারেন। তবে তা কেনার আগে অবশ্যই সেই পণ্যের গুণগত মান সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে নেবেন।

    ব্যাকটেরিয়া
    আলসার

নিউজটি আপডেট করেছেন : Banglar Jamin

কমেন্ট বক্স

এ জাতীয় আরো খবর

সর্বশেষ সংবাদ