• বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ১০:২৮ অপরাহ্ন

করিম ভরসার নেই কোন খোঁজ

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২২
  • ৫০

তিনবারের সংসদ সদস্য, বিশিষ্ট শিল্পপতি করিম উদ্দিন ভরসাকে এবারও রংপুরের আদালতে হাজির করা হয়নি। উচ্চ আদালতের নির্দেশে এক শনিবার পর, অর্থাৎ ১৫ দিন পর রংপুরের জজ আদালতে হাজির করার কথা থাকলেও তাকে হাজির করা হয়নি। এর আগে ২ এপ্রিল তাকে হাজির করার কথা থাকলেও তা করেননি করিম ভরসার দুই ছেলে। তার নয় সন্তান তাদের বাবাকে প্রকাশ্যে আনতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন। এদিকে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে তার মালিকানাধীন কল-কারখানা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অন্তত ১০ হাজার শ্রমিক বেকার হয়ে পড়েছেন বলে সন্তানদের একটি পক্ষ দাবি করেছে।

সূত্রে জানা গেছে, করিম উদ্দিন ভরসাকে (৮৭) জিম্মায় নিয়ে বেআইনিভাবে আটক রেখেছেন ছেলে সাইফুল উদ্দিন ওরফে শিমুল ভরসা। এমন অভিযোগ করে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি হাই কোর্টে হেবিয়াস কর্পাস অভিযোগ করেন তার অপর সন্তান শফিকুল ইসলাম ভরসা, সামছুল ইসলাম ভরসা, শরিফুল ইসলাম ভরসা, কামরুল ইসলাম ভরসা, জোসনা আরা বেগম, নাজমা জামান, রোকসানা বেগম, বিলকিস বেগম ও কাওসার জাহান। ওই রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ২০ ফেব্রুয়ারি বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ রুলসহ আদেশ দেন। রুলে ছেলে সাইফুল উদ্দিন ভরসার হেফাজতে করিম উদ্দিন ভরসাকে আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূতভাবে আটক রাখা হয়নি, তা নিশ্চিতে আদালতের সামনে তাকে হাজির করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, রুলে তা জানতে চাওয়া হয়। একই সঙ্গে করিম উদ্দিন ভরসাকে আবেদনকারী নয় সন্তানের যৌথ নিরাপদ হেফাজতে কেন দেওয়া হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয় রুলে।

ওই আদেশের বিরুদ্ধে ৩ মার্চ আপিল আবেদন করলে সুপ্রিম কোর্ট ছয় সপ্তাহের জন্য ওই আদেশ স্থগিত করে। ওই স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে শফিকুল ইসলাম ভরসাসহ নয় সন্তান ফের আবেদন করলে করিম উদ্দিন ভরসাকে হাজির করে এক সপ্তাহ পর পর প্রতি শনিবার অপর ছেলেমেয়েদের দেখার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য রংপুরের জজ আদালতকে নির্দেশ দেয় সর্বোচ্চ আদালত। সে অনুযায়ী গত ২ এপ্রিল করিম উদ্দিন ভরসাকে রংপুর জজ আদালতে হাজির করার কথা থাকলেও সেদিনও হাজির করা হয়নি। তখন রংপুর জজ আদালত আবারও ১৬ এপ্রিল করিম ভরসাকে হাজির করার দিন ধার্য করা হলেও তাকে হাজির করা হয়নি। করিম উদ্দিন ভরসার দুই স্ত্রীর ঘরে ১৬ সন্তান। সন্তানদের মধ্যে সাইদুল ইসলাম ভরসা ও কাজল ভরসা মারা গেছেন। আর ফখরুল ইসলাম ভরসা ও সোহেল ভরসা থাকেন দেশের বাইরে। প্রথম স্ত্রী ছকিনা করিম মারা গেছেন। দ্বিতীয় স্ত্রী সুলতানা রাজিয়া (৭৫) এখনো বেঁচে আছেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে ৮ সেপ্টেম্বর রংপুর আদালত এক আদেশে করিম উদ্দিন ভরসাকে তার প্রথম স্ত্রীর সন্তান সাইফুল উদ্দিন ভরসার জিম্মায় দেন। এরপর তার সঙ্গে আর দেখা করতে পারছেন না অপর সন্তানেরা। আট মাস ধরে তারা তাদের বাবার খোঁজও জানতে পারছেন না।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন

ডেস্ক রিপোর্ট/জান্নাত

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..