• রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন

চোরাই মোবাইল বিক্রি ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে, গ্রেপ্তার ৭

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৪ জুন, ২০২১
  • ১০৮

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

সিলেটে ছিনতাইকৃত মোবাইল-টাকা উদ্ধার করতে গিয়ে অনলাইন চোরাচক্রের সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। ইতোমধ্যে এই চক্রের ৭ জন্যকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার অতিরিক্ত উপকমিশনার বি.এম. আশরাফ উল্যাহ তাহের জানান, গত জানুয়ারি মাসে কুচাইয়ে একজন আইনজীবীর মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনার পর চাঞ্চল্যকর এই তথ্যটি পুলিশের কাছে ধরা পড়ে। দীর্ঘ ৫ মাস অনুসন্ধান শেষে সিলেটের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এই চক্রের মূল হোতাসহ তার দুই সহযোগীকে গ্রেপ্তার করে মোগলাবাজার থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, মৌলভীবাজারের সদর থানার আমতৈল এলাকার চলকাপন গ্রামের মৃত নীল মিয়ার ছেলে আইয়ুব আলী (২২), হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার শাকপা টুকেরবাজার এলাকার মৃত চান মিয়ার ছেলে আইনুল হক (২০) ও সিলেটের দক্ষিণ সুমরা উপজেলার শিববাড়ি এলাকার জৈনপুর গ্রামের মৃত সিকান্দর আলীর ছেলে বেলাল আহমদ (২২), জালালাবাদ থানার চরুগাও এলাকার ইমাম হোসেনের ছেলে মো. শামীম মিয়া (২২), চুনারুঘাটের সাটিয়াজুরি গ্রামের মৃত নূর হোসেনের ছেলে সোলেমান (২২), মোগলাবাজার থানাধীন কুচাই গ্রামের মো. খলকু মিয়ার ছেলে রুবেল (২৪), নবীগঞ্জ সাকুয়া গ্রামের মৃত আব্দুল্লাহ’র ছেলে ছাইদ উল্লাহ (২১)। এদের মধ্যে আইয়ুব আলী এই চোর চক্রের মূল হোতা। তবে তার আপন বড় ভাই আব্দুস শহীদকে এখনো ধরতে পারেনি পুলিশ।

এ চক্রটি ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে কম দামে মোবাইল ফোন বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দেয়। তবে এক আইডি বেশিদিন ব্যবহার করে না। কিছু মোবাইল বিক্রির পর সেই আইডি ডিঅ্যাক্টিভ করে নতুন আরেকটি আইডি খুলে। সিলেটে চোরাই ও ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোনগুলো কম দামে বিক্রি করে। এ চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে এভাবে অনলাইনে অপরাধ কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছে। তবে শেষ রক্ষা হয়নি।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা জানায়, সিলেটের ছিনতাইকারীসহ বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে প্রতিদিন মোবাইল ফোন ক্রয় করে তারা। পরে সেগুলো অনলাইনে বিক্রি করে। রোববার (১৩ জুন) গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। আরেক মূল হোতা আব্দুস শহিদসহ এ চক্রের অপর সদস্যদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..