• মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ১১:৫৫ অপরাহ্ন

রংপুরকে ব্র্যান্ডিং করছে হাঁড়িভাঙ্গা আম

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১
  • ৪০

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে গত বছরের ৯৩ হাজার মেট্রিক টনের চেয়েও রংপুরের হাঁড়িভাঙ্গা আম এবার বেশি উৎপাদনের আশা করছেন চাষি ও উদ্যান বিশেষজ্ঞরা। পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতিতেও সরবরাহ নির্বিঘ্ন রাখতে সরকারিভাবে ডাক বিভাগ ও রেলওয়ের বিশেষ সার্ভিস চালুর কথা জানালেন জেলা প্রশাসক।

গত কয়েক বছরে জেলার বিভিন্ন এলাকায় সুমিষ্ট রসাল হাঁড়িভাঙ্গা জাতের আম বাগানের সংখ্যা এবং আয়তন বেড়েছে। এবার মৌসুমের শুরুতে কয়েক দফা ঝড়ে কিছু মুকুল ঝরে গেছে। এরপরও ভালো ফলনের আশা করছেন আম চাষিরা।

চাষিরা জানান, এ বছর বৃষ্টির কারণে আমের ফলন ভালো হয়নি। সাইজও ছোট হয়ে গেছে।

রংপুর কৃষি অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালকের কার্যালয়ের উদ্যান বিশেষজ্ঞ মেজবাহবুল ইসলাম বলেন, গত বছর হাঁড়িভাঙ্গা আমের উৎপাদন ছিল ৯৩ হাজার মেট্রিক টন। এবার হয়তো ফলন ভালো না হওয়ায় এর কাছাকাছি যেতে পারে।

রংপুর জেলা প্রশাসক আসিব আহসান জানান, গত বছরের মতো এবারও ডাক বিভাগের বিশেষ সার্ভিসের মাধ্যমে দেশ বিদেশে আম সরবরাহের ব্যবস্থা থাকবে। এ ছাড়া পাশাপাশি রেলের বিশেষ সার্ভিস চালু হবে।

জেলার প্রায় ৭ হাজার হেক্টর জমি আম চাষের আওতায় এসেছে। যার মধ্যে প্রায় ৪ হাজার হেক্টর বাগান শুধু হাঁড়িভাঙ্গার দখলে।প্রতি বছর দেশ ও দেশের বাইরে বেড়েছে এই হাঁড়িভাঙ্গা আমের চাহিদা। সম্ভাবনা বিবেচনা করে সরকারিভাবে শস্যভাণ্ডার উত্তরের জেলা রংপুরকে ব্র্যান্ডিং করা হচ্ছে হাঁড়িভাঙ্গা আমের নামে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..