• মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ১২:৪৫ অপরাহ্ন

ময়মনসিংহের ফুলপুর পৌর নির্বাচনে লোকবল নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৫০
মিজানুর রহমান, ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের ফুলপুর পৌরসভা নির্বাচনে সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসার নিয়োগে সরকারী প্রাথমিক ও উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পরিবর্তে বেসরকারী আনন্দ ও রেসিডিন্সিয়াল স্কুলের শিক্ষকদের নিয়োগ ও প্রশিক্ষণ দেওয়ায় উপজেলা নির্বাচন অফিসার আশুরা খাতুনের বিরোধ্যে ক্ষমতার অপব্যবহার ও দূর্নীতির অভিযোগ করেছেন ফুলপুর প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কতক শিক্ষক ও তাঁদের নেতৃবৃন্দ।মাথাপিছু টাকা গ্রহন করে সরকারী স্কুলের শিক্ষকদের বঞ্চিত করে কতক বেসরকারী স্কুল এবং মাদ্রাসা এমনকি ইসলামী ফাউন্ডেশনের সুইপার ঝাড়ুদারকে পোলিং অফিসার হিসেবে নিয়োগ দিয়ে ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছেন, তারা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান।
আজ সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার ফুলপুর পৌরসভা নির্বাচন/২০২১ জনাব দেওয়ান মোঃ সারোয়ার জাহানের সাথে শিক্ষক নেতৃবৃন্দ ফুলপুর নির্বাচন কমিশন অফিসে দেখা করে এ সব অভিযোগ করলে তিনি বিষয়টি দেখছেন বলে জানান।অনুসন্ধানে জানা যায় পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ডের ১১ টি ভোটকেন্দ্রের ৭৬ টি কক্ষে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহনের উদ্দেশ্যে সর্বমোট ২৩৯ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে যার মধ্যে ১০/১২ জন বেসরকারী স্কুল এবং মাদ্রাসার শিক্ষক রয়েছেন।শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাচন অফিসার আশুরা খাতুন বলেন,নিয়ম মেনে এবং রিটার্নিং অফিসারের সদয় অবগতি ক্রমেই তাঁদেরকে নিয়োগ ও প্রশিক্ষন দেওয়া হচ্ছে।শিক্ষক নেতাদের আপত্তির বিষয়টি তিনি জানেন।এ ব্যাপারে জানতে রিটার্নিং অফিসার ফুলপুর পৌরসভা নির্বাচন/২০২১ জনাব দেওয়ান মোঃ সারোয়ার জাহানের মুঠোফোনে বার বার ফোন করেও তাঁকে পাওয়া যায়নি।
পরে আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসার আলীমুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টি তাকে অবগত করা হলে তিনিও রিটার্নিং অফিসারের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..