• শুক্রবার, ০৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৪২ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
রেসিপিঃ বার-বি-কিউ চিকেন জঙ্গিরা আর কখনোই ধ্বংসাত্মক হতে পারবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঘরে বসে হেয়ার স্পা করে পান ঝলমলে চুল। সংগঠনবিরোধী কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার নির্দেশ সেতুমন্ত্রীর সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় নাগেশ্বরীতে স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন নেত্রকোনার বারহাট্রায় খাদ্যের নিরাপদতায় সচেতনতা বিষয়ক সেমিনার কমলগঞ্জে আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থীর প্রচারণার  সিএনজি গাড়িতে দুবৃত্তদের আগুন সীমান্তে ফেলানী হত্যা প্রতীক্ষার ১ দশকেও বিচার পায়নি পরিবার নেত্রকোনায় অবশেষে দুর্গাপুরে বন্ধ হলো ভিজাবালু পরিবহন

ঘরে বসে হেয়ার স্পা করে পান ঝলমলে চুল।

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২১
বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ 
ঝলমলে সুন্দর চুল কে না চায়। চুলের আকর্ষণই অন্য রকম। সুন্দর একটু চেষ্টা করলে পার্লারে না গিয়ে ঘরে বসেই নেওয়া যেতে পারে চুলের যত। এতে চুল হবে সুন্দর, মজবুত, ঝলমলে আর আকর্ষণীয়।
হেয়ার স্পা চুল সুস্থ ও সুন্দর করে তোলার এক বিশেষ পদ্ধতি। এ পদ্ধতিতে প্রথমে আপনার চুল কি ধরনের, মানে চুল তৈলাক্ত না শুষ্ক, স্ক্যাল্পে কোনো সমস্যা আছে কিনা এগুলো টেস্ট করা হয়। তারপর অয়েল ম্যাসাজ, শ্যাম্পু, হেয়ার মাস্ক, কন্ডিশনার ব্যবহার করে স্ক্যাল্প চুল নরম ও মসৃণ করে তোলা হয়। শ্যাম্পু করার পর ডিপ কন্ডিশনিং মাস্ক লাগিয়ে ২০-২৫ মিনিট ম্যাসাজ করা হয়।
হেয়ার স্পাতে আপনার চুলের প্রকৃতি অনুযায়ী ক্রিম ব্যবহার করে পুরো চুলের স্পা করতে পারেন।
সাধারণত বিউটি পালারে প্রফেশনাল বিউটিশিয়ানরা হেয়ার স্পা করে থাকেন। তবে বাড়িতেও হেয়ার স্পা করতে পারেন।
কখন হেয়ার স্পা করা জরুরিঃ
নিচের কয়েকটি প্রশ্নের চটপট উত্তর দিয়ে ফেলুন। ২-৩টি প্রশ্নের উত্তর মিলে গেলে বুঝবেন আপনার জন্য হেয়ার স্পা জরুরি।
আপনার স্ক্যাল্প কি প্রায়শই চুলকায়, এমনকি শ্যাম্পু করার পরও?
চুল একেবারে নিস্তেজ ও নিষ্প্রভ হয়ে পড়ছে, কোনো চকচকে ভাব নেই? চুলের ডগা ফেটে গেছে ও খুব রুক্ষ হয়ে পড়ছে কি?
প্রায়শ চুলে জট পাকিয়ে যায়, চুল এলোমেলো হয়ে পড়ে? আপনি কি খুব স্ট্রেসড?
হঠাৎ চুলে খুব খুশকি হচ্ছে? কয়েক মাসে চুলে কালার বা কোনো কেমিক্যাল ট্রিটমেন্ট করেছেন কি?
বাড়িতে বসে কিভাবে হেয়ার স্পা করবেন:
বাড়িতে হেয়ার স্পা করতে লাগবে-
১ মাইল্ড হার্বাল শ্যাম্পু
২ প্লাস্টিক সাওয়ার ক্যাপ,
৩ তোয়ালে,
৪ বড় দাঁড়ার চিরুনি,
৫ হেয়ার কন্ডিশনিংয়ের কতকগুলো উপকরণ।
চুল ময়লা হলে প্রথমে চুল শ্যাম্পু দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। চুল পরিষ্কার থাকলে হেয়ার কন্ডিশনিংয়ের উপকরণগুলো সহজে চুলের গোড়ায় প্রবেশ করবে।
শ্যাম্পু করার পর ভালো করে পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। এরপর মাথায় তোয়ালে জড়িয়ে রাখুন। চুলের ভিজে ভাব কমে গেলে চুল আঁচড়ান। চুলের আগা থেকে জট ছড়াতে শুরু করুন। প্রথমে চুলের উপরের অংশ থেকে জোরে জোরে চুল আঁচড়াবেন না।
হেয়ার মাস্ক বাড়িতেও তৈরি করে নিতে পারেন।
হেয়ার মাস্ক তৈরির উপকরণ:
ডিম ১টি, ১ টেবিল চামচ ক্যাস্টর অয়েল, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, ১ চা-চামচ গি্লসারিন বা মধু ভালো করে মিশিয়ে নিন। এগ বিটার দিয়ে মিশিয়ে নিতে পারেন।
স্ক্যাল্পে ও চুলে এই মিশ্রণ ভালো করে লাগান। পরে প্লাস্টিক সাওয়ার ক্যাপ পরে নিন। ১ ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। ১ ঘণ্টা পর আবারও শ্যাম্পু দিয়ে চুল ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
৪ কাপ পানিতে ব্যবহার করা চা-পাতা দিয়ে ভালো করে ফোটান। এই মিশ্রণের সঙ্গে লেবুর রস মেশান। ঠাণ্ডা করুন। শ্যাম্পুর পর হেয়ার রিন্স হিসেবে এটি ব্যবহার করুন। এতে চুল চকচকে ও পরিষ্কার হবে।
হেয়ার স্পার পর কিভাবে চুল মেনটেইন করবেন:
শুষ্ক চুলে সপ্তাহে অন্তত ২ দিন অয়েল ম্যাসাজ করুন। তারপর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। বেশি কেমিক্যালসমৃদ্ধ শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন না। চুলের ন্যাচারাল অয়েল ব্যালান্স নষ্ট হয়ে যেতে পারে। শ্যাম্পুর পর নারিশিং-ময়শ্চারাইজিং কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। মাসে একবার ডিপ কন্ডিশনিং মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। ইলেকট্রিক কার্লার বা ড্রায়ার ঘনঘন ব্যবহার করবেন না। এতে চুল আরও শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।
Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..