• শনিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২০, ১২:০৯ অপরাহ্ন

‘দুই টাকায় শিক্ষা ফাউন্ডেশনের’ উদ্যোগে মানবতার ঝুড়ি  মো.জয়নাল আবেদিন

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০
বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ 
সুস্থ, সবল ও কর্মক্ষম হয়ে বেঁচে থাকার উদ্দ্যেশেই মানুষ মূলত খাদ্য গ্রহণ করে থাকে। যেকোনো খাবার খেয়ে পেট ভরানো গেলেও তাতে দেহের চাহিদা পূরণ হয়ে সুস্থ থাকা যায়। পুষ্টিকর খাদ্য হিসেবে ফলের গুরুত্ব অপরিসীম।
আমাদের দেশের সচ্ছল মানুষেরা সেই চাহিদা পূরণ করতে পারলেও নিম্ম আয়ের, অসহায় ও গরীব মানুষের কাছে তা অধরাই থেকে যায়। এবার সেই সব মানুষের কথা চিন্তা করে ককসবাজারে উখিয়ার ‘দুই টাকায় শিক্ষা ফাউন্ডেশনের’ এক ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছেন। কোর্টবাজার, ভালুকিয়া ও মনির মার্কেটে সবজির দোকান, মুদির দোকান ও লাইব্রেরীর সামনে  অন্তত ১০টি ‘মানবতার ঝুড়ি’ ঝুলিয়েছেন ফাউন্ডেশনটি।
 ঝুঁড়ির গায়ে পোস্টারে লেখা আছে,‘আপনার ক্রয়কৃত ফল, মুদি পণ্য,সবজি  গরিব, অসহায় ও অসুস্থ ব্যক্তিদের জন্য রেখে দিন।’ পোস্টারের আরেকটি অংশে লেখা- ‘ঝুড়ির মধ্য থেকে গরিব, অসহায় ও অসুস্থ ব্যক্তিরা আপনার প্রয়োজনীয় পণ্য ঝুড়ি থেকে তুলে নিন।’
ফলের দোকানে ঝুড়ি দেয়ার পর দেখা যায়, এক মানসিক বিকারগ্রস্থ ভবঘুরে ঝুড়ি থেকে ফল সংগ্রহ করে খাচ্ছেন। অসহায়, ভিক্ষুকরাও ফল নিতে দেখা গেছে। এদিকে ফল ক্রয় করতে আসা  আগ্রহ প্রকাশ করে ঝুড়িতে ফল, সবজি ও স্টেশনারি দিচ্ছেন।
কোটবাজার দোকান মালিক সমিতির সহসভাপতি খোশেদ আলম বাবুল বলেন, ‘বিষয়টি দেখে আমার খুবই ভালো লেগেছে। এমন উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখে। এভাবে সমাজের বিত্তাবানদের এগিয়ে আসা উচিত।’
ফাইন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ রবিউল্লাহ বলেন, সমাজে গরীব, অসহায় ও অসুস্থ অনেক মানুষ রয়েছে। প্রয়োজনীয় সামর্থ্য না থাকায় প্রয়োজনীয় চাহিদা পূরণ করতে পারেনা। আবার যারা ফল কিনেন তারা একটা দুইটা ফল দান করতেও আগ্রহী। আমরা তাদের দানেরই অংশটি অসহায়দের কাছে পৌঁছে দিচ্ছি। ধীরে ধীরে গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতেও ঝুড়ি স্থাপন করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান তিনি।
Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..