• শনিবার, ০৩ অক্টোবর ২০২০, ০৭:১৩ অপরাহ্ন

যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর পায়ের রগ কাটল স্বামী

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২০

বাংলারজমিন২৪কম ডেক্স-

বরিশালের বানারীপাড়া পৌর শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে হ্যাপী বেগম নামে এক নারীর পায়ের রগ কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী মো. রাসেলের বিরুদ্ধে।

যৌতুকের ২ লাখ ৬৪ হাজার টাকা না দেয়ায় শনিবার সকালে এই ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই নারী। আহত হ্যাপীকে উদ্ধার করে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন তার স্বজনরা।

হ্যাপী জানান, ১০ বছর আগে একই উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের হাওড়াবাড়ি এলাকার হাসান বালীর ছেলে ধান ব্যবসায়ী রাসেলের সঙ্গে পারিবারিকভাবে তার বিয়ে হয়। তাদের রিমি (৯) ও রাতুল (সাড়ে ৩) নামের তাদের দুটি সন্তান রয়েছে।

তিনি জানান, তিন লাখ টাকার জন্য দির্ঘদিন ধরে মানসিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন করে আসছিল রাসেল। যৌতুকের দাবি মেটাতে স্বর্ণালংকার বন্ধক রেখে তাকে ৩৬ হাজার টাকা দিলেও বাকি টাকার জন্য নির্যাতন করতে থাকে সে। শারীরিক সমস্যায় ভুগলেও রাসেল তাকে চিকিৎসা করায়নি। শুক্রবার রাতে হ্যাপী চিকিৎসার টাকার জন্য স্বামীকে অনুরোধ জানালেও যৌতুকের বাকি টাকার এনে চিকিৎসা করাতে বলে রাসেল। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে বাগ্বিতণ্ডা হয়।

শনিবার সকালে হ্যাপী চিকিৎসার জন্য বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রওনা হলে রাসেল ও তার বাবা হাসান বালী হ্যাপীর পিছু নেয়। বানারীপাড়া পৌর শহরের হাইস্কুল সংলগ্ন এলাকায় রিকশার গতিরোধ করে হ্যাপীকে টেনেহিঁচড়ে নামিয়ে বেদম মারধর করে তার স্বামী। বাসা থেকে বের হওয়ার শাস্তি হিসেবে রাসেল ধারালো চাকু দিয়ে তার বাম পায়ের রগ কেটে দেয়। এ সময় হ্যাপী ও তার শিশুপুত্রের আর্তচিৎকারে পথচারীরা এগিয়ে এলে তারা দৌড়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

এদিকে অভিযুক্ত মো. রাসেল জানান, তার স্ত্রী একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে পরকীয়ায় আসক্ত। শনিবার সকালে হ্যাপী ব্যাগ গুছিয়ে অন্যত্র চলে যেতে থাকলে সে তার স্ত্রীর পায়ের রগ কেটে দেয়ার কথা অকপটে স্বীকার করেন। যৌতুকের টাকার জন্য স্ত্রীর ওপর হামলা চালানো হয়নি বলে দাবি করে রাসেল।

বানারীপাড়া থানার ওসি হেলাল উদ্দিন বলেন, স্ত্রীর পায়ের রগ কেটে দেয়ার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে হামলাকারী পালিয়ে যাওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা যায়নি। আহত হ্যাপীকে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শেবাচিম) ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..