• শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১২:৩৩ অপরাহ্ন

অনলাইন বিক্রয় সেবার মাধ্যমে অর্থনীতির চাকা সচল হবে-ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৩ মে, ২০২০
  • ৩৫

বাংলারজমিন২৪কম অনলাইন ডেক্স-করোনাভাইরাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের জন্য অনলাইন বিক্রয় সেবা ‘আনন্দমেলা’র উদ্বোধন করে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, অনলাইন বিক্রয় সেবা এসএমই খাতে ইতিবাচক পরিবর্তন আনবে। করোনার প্রভাবে যখন সমগ্র বিশ্বের অর্থনীতিতে স্থবিরতা ও নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে এমনই একটি সংকটময় সময়ে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের পাশে সরকারের এটুআই প্রকল্পের সহায়তায় ইউএনডিপি আনন্দমেলা বিক্রয় কেন্দ্রের সূচনা করেছে-যা অর্থনীতিকে ঘুরে দাঁড়াতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। অর্থনীতিতে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে প্রযুক্তিনির্ভর ব্যবসার মডেলগুলো আরও সম্প্রসারিত করতে হবে।

ইউনাইটেড নেশনস ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম (ইউএনডিপি) ইন বাংলাদেশ এর উদ্যোগে মঙ্গলবার ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে (www.anondomela.shop) অনলাইন বিক্রয় সেবার উদ্বোধন করে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, অনলাইন বিক্রয় সেবার মাধ্যমে স্থবির ও অচলপ্রায় অর্থনীতির চাকা সচল হবে। ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের সাথে বাংলাদেশের এক বৃহৎ জনগোষ্ঠী যুক্ত।

তিনি বলেন, দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন খাতে প্রণোদনার পাশাপাশি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পখাতেও ইতোমধ্যে বিশ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা ঘোষণা করেছেন। বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাগণ এই অনলাইন প্লাটফর্মে পণ্য বিক্রয়ের সুযোগ পাবে যা তাদের জীবন যাত্রায় আনবে ইতিবাচক পরিবর্তন। শুধু করোনা পরিস্থিতি কিংবা ঈদকে সামনে রেখে নয়, বরং স্বাভাবিক সকল সময়ে আনন্দমেলা প্লাটফর্মটি চলমান রাখার পরামর্শ দেন স্পিকার। এমন একটি উদ্যোগ নেয়ার জন্য ইউএনডিপি বাংলাদেশ-কে ধন্যবাদ তিনি।

ইউএনডিপি বাংলাদেশের জেন্ডার বিশেষজ্ঞ শারমিন ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পো, ইউএনডিপির কান্ট্রি ডিরেক্টর সুদীপ্ত মুখার্জী, এটুআই/ইউএনডিপি’র পলিসি অ্যাডভাইজর আনির চৌধুরী।

আনন্দমেলার প্রকল্প উপস্থাপন করেন এটুআই/ইউএনডিপি’র সলিউশন আর্কিটেক্ট স্পেশালিস্ট রেজওয়ানুল হক জামি।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..