• মঙ্গলবার, ২৪ মার্চ ২০২০, ১২:১৪ পূর্বাহ্ন

ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের গুরুত্ব ও সম্ভাবনা

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২১ মার্চ, ২০২০
  • ৪৩ বার পঠিত

বাংলার জমিন ২৪.কম/ নিজস্ব প্রতিনিধি: বর্তমান তরুণ প্রজন্মকে বৈশ্বিক চাহিদার সঙ্গে মিল রেখে দক্ষতা উন্নয়নের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে গ্রাহকের প্রয়োজনমত পণ্য বা সেবা সহজে তৈরি এবং পৌঁছে দেয়া সম্ভব।মার্কেটিংয়ে ভাল সম্ভাবনা তৈরি করা যেতে পারে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে কেননা ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে গ্রাহক টার্গেট করা প্রচলিত মার্কেটিংয়ের চেয়ে খুবই সহজ। বাংলাদেশ অভূতপূর্ব সাফল্য লাভ করেছে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে যার ফলে ৯০ শতাংশ বিদেশী সহায়তা নির্ভর থেকে সেটি এখন কেবল ২ শতাংশে নেমে এসেছে।

মার্কেটিংয়ে আমাদের দক্ষ মানবসম্পদের অভাবে প্রতিবছর কোটি ডলার বাংলাদেশের বাইরে চলে যায়। এ কারনে আমাদের ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের দক্ষতা ও সম্ভাবনা তৈরি করে নিজেদের চাহিদা নিজেদেরই পূরণ করতে হবে। প্রযুক্তিগত উন্নয়নের ফলে আমরা খুব সহজেই পণ্যেরর মান ও গুন সম্পর্কে প্রতিটি গ্রাহকের কাছে তুলে ধরতে পারি । আধুনিক ব্যিবসায়ে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের গুরুত্ব বুঝে দক্ষ জনবল বাড়িয়ে গ্রাহকের পণ্যেছর সুবিধা সুনিশ্চিত করে পণ্যফ বা সেবা পৌঁছে দিতে হবে। আমাদের দেশের শিক্ষার্থীদের আধুনিক মার্কেটিং বিষয়ের প্রতি লক্ষ্য রেখে সেই ভাবে কাজের সুযোগ তৈরি করতে হবে।

ডিজিটাল মার্কেটিং বর্তমান সময় তথ্য প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে মার্কেটিংয়ে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে নতুন নতুন ভোক্তা তৈরি করে এবং প্রতিযোগীদের সাথে প্রতিযোগীতা মুলক মার্কেটিং তৈরি করা যায়। এছাড়াও অতি কম খরচে জেনারেল মার্কেটিংয়ের তুলনায় ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে কাজ করা সম্ভব।

বর্তমান যুগে তথ্যপ্রযুক্তির প্রসারের ফলে ব্যবসা-বাণিজ্য, চাকরি, পড়াশোনা ইত্যাদি সবকিছুতেই আমুল পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। এখন সবকিছুই প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে উঠেছে সময়ের পরিবর্তনের সাথে। এর ফলে আমরা যে কোন কাজ খুব অল্প সময়ে খুব সহজেই করতে পারছি। এজন্য সময়ের সাথে আমাদেরও পরিবর্তন আনতে হবে। একসময় আমরা কোন পণ্য ক্রয় করতে বাজার মার্কেটে যেতে হতো কিন্তু ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের কল্যাণে এখন আমরা ঘরে বসেই পণ্য ক্রয়-বিক্রয় করতে পারছি নিজের পছন্দ – অনুযায়ী খুব অল্প সময়ে খুব সহজেই।

পণ্য বা সেবাগুলোকে বিজ্ঞাপনসহ বাজার গবেষণার মাধ্যমে বিক্রি করার পক্রিয়াকেই মার্কেটিং বলে। বর্তমান সময়ে বিভিন্ন পদ্ধতির মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিং করা সম্ভব। বিশেষ কয়েকটি পদ্ধতির মধ্যে -সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন ,সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ,কন্টেন্ট মার্কেটিং ,ভাইরাল মার্কেটিং,ইমেইল মার্কেটিং, অন্যতম ভুমিকা পালন করছে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..