• শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন

হাটহাজারীতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে দুই দোকানিকে জরিমানা

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৫৫ বার পঠিত

মাহমুদ আল আজাদ হাটহাজারী (চট্টগ্রাম)প্রতিনিধিঃ-
অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে নিম্নমানের খাবার তৈরীরর অপরাধে হাটহাজারীতে ভাই ভাই বেকারী ও হাশেম হোটেল নামের দুই দোকানে ভ্রাম্যামান আদালত পরিচালনা করে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

বুধবার(১২ফেব্রুয়ারি) বিকেলে হাটহাজারী পৌরসভার শায়েস্থা খাঁ পাড়া সড়কের ভাই ভাই বেকারীর মালিক শফিকুল ইসলামকে ১০হাজার টাকা ও চট্টগ্রাম-নাজিরহাট সড়কের কবুতরহাট এলাকায় হাশেম হোটেলের মালিক ইবরাহিমকে ২হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

ভ্রাম্যামান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বিহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুহুল আমিন। ভোক্তা অধিকার আইনে খাদ্য তৈরীতে ভেজাল রাসায়নিক উপাদান (সিকারিন, রং, এ্যমোনিয়া, ডালডা, পারফিউম) ব্যবহার করে খাদ্যদ্রব্য তৈরী করছিলো।গত দুই সপ্তাহ ধরে ক্রমাগত ব্যবহারের ফলে পামওয়েল এর রং পরিবর্তন হয়ে মিষ্টির সিরার(রস) আকার ধারন করেছে। যা দেখে পামওয়েল(ডালডা) দেখে বুঝার উপায় নাই যে এটা পুরনো তেল নাকি মিষ্টির সিরা। বাসি তেলের পোড়া পামওয়েল দিয়ে জিলাপি এবং বিভিন্ন ধরনের পিঠা ভাজা হত। তা’ছাড়াও ময়লা ফেলার পাত্রে রাখা হত দুধের ছানা তৈরির পানি। এ ছানা দিয়ে তৈরী হয় মিষ্টি দই তৈরীর পানি।যা খেলে যে কোন মানুষের নানা রোগে আক্রান্ত হবে।পচাঁ বাসি ও নিম্মমানের খাবার তৈরী করে বাজারজাত করে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ঠেলে দিচ্ছে অসাধু ব্যবসায়ীরা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন প্রতিবেদককে জানান, খাদ্যদ্রব্যে ক্ষতিকর রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করায় কারখানা ও হোটেল মালিককে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ১২হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং ভবিৎষতে নোংরা পরিবেশ ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে নিম্মমানের খাবার তৈরী করবেনা বলেও অঙ্গীকার নেয়া হয়।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..