• রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন

৮০ বছর ধরে চলছে টম আর জেরির লড়াই

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৪১ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্কঃ  এক বিড়ালের বাড়িতে থাকে এক ইঁদুর, তীক্ষ্ণ বুদ্ধি দিয়ে ইঁদুর সারাদিন জ্বালিয়ে মারে ওই বোকা বিড়ালকে। কার্টুন ছবিতে টম আর জেরির অনন্ত লড়াই দেখে আমোদিত হননি, দুনিয়ায় এমন মানুষ বিরল। সবসময়ই বোকা টম চালাক জেরিকে ফাঁদে ফেলার পরিকল্পনা করে, সবসময় সেই ফাঁদে সে নিজেই পড়ে।

গল্পগুলো সবারই জানা, অজানা ওই গল্পগুলোর পিছনের কাহিনী। অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড জয় থেকে শুরু করে স্নায়ু যুদ্ধের পটভূমিতে গোপন পর্ব তৈরি এমন অনেক লোমহর্ষক ঘটনা নিয়ে এই সপ্তাহেই ৮০ বছরে পা দিচ্ছে এই জনপ্রিয় কার্টুন সিরিজ।

প্রথমে, এই কার্টুন সিরিজের নাম ছিল জ্যাসপার অ্যান্ড জিঙ্কস। ১৯৪০ সালে মেট্রো গোল্ডউইন মেয়ারের অ্যানিমেশন শাখার দুই নির্মাতা বিল হান্না ও জো বারবেরা টম-জেরি আখ্যানের কাজ শুরু করেছিলেন। কার্টুনের দুনিয়ায় তাদেরকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হয়েছিল পোর্কি পিগ আর মিকি মাউসের সাথে।

সেই সময় দুজন নির্মাতারই ছিল ৩০ এর নিচে বয়স। জো বারবেরা বিবিসিকে জানিয়েছেন, বারংবার একই ধরনের গল্প ফিরে আসলেও টম-জেরির দ্বন্দ্ব, বিবাদ আর ধাওয়া করার সাদামাটা গল্প তাকে আনন্দ দিতো। প্রথম বাজারে আসার পরই বাজিমাত করে টম অ্যান্ড জেরি। অভিষেকেই কার্টুন সিরিজটি অস্কারে সেরা অ্যানিমেটেড শর্টফিল্ম ক্যাটেগরিতে মনোনীত হয়। কিন্তু এই অর্জনে ওই দুই তরুণ অ্যানিমেটরের অবদান স্বীকার করা হয়নি।

টম অ্যান্ড জেরির অধিকাংশ জনপ্রিয় পর্বেই কোনো সংলাপ নেই। তবে প্রথমে এ ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত ছিল না। কিন্তু চার্লি চ্যাপলিনের সমসাময়িকে বেড়ে ওঠা টম অ্যান্ড জেরির অ্যানিমেটররা ভেবেছিলেন সংলাপ ছাড়াই এই কার্টুন মানুষকে বিনোদিত করতে পারবে। এই কার্টুন সিরিজের আবহ সংগীত তৈরি করেছিলেন স্কট ব্রাডলি। এমনকি, টম যে বিভিন্ন দৃশ্যে মানুষের মতো চিৎকার করে, এই আওয়াজ অ্যানিমেটর বিল হান্নার নিজেরই।

এই কার্টুন ছবির প্রথম ১০০ পর্ব নির্মাণের সঙ্গে জড়িত ছিলেন ওই দুই অ্যানিমেটর। প্রতি দুই সপ্তাহ পরপর টম অ্যান্ড জেরির নতুন এক পর্ব মুক্তি দেওয়া হতো। প্রতি পর্ব নির্মাণের জন্য প্রায় ৫০ হাজার মার্কিন ডলার খরচ পড়তো। তাই নতুন পর্ব নির্মাণ ছিল এক হিসেবী পদক্ষেপ। এভাবেই টম অ্যান্ড জেরি একদিন দুনিয়ার সেরা কার্টুন ছবি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। লাভ করে সাতটি অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড।

এরমধ্যেই, ১৯৫০ সালের দিকে ওই কার্টুন ছবির প্রযোজক ফ্রেড কুইম্বি দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেন। খরচ কমাতে মেট্রো গোল্ডউইন মেয়ার তাদের অ্যানিমেশন শাখা বন্ধ ঘোষণা করে। প্রতিষ্ঠানটি সিদ্ধান্ত নেয়েআগে বানানো বিভিন্ন অংশ নিয়ে নতুন পর্বগুলো নির্মাণ করবে।

১৯৫৭ সালে হান্না ও বারবেরা দুজন মিলে নতুন একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান তৈরি করে সেখান থেকে টম অ্যান্ড জেরি নির্মাণ শুরু করেন। ১৯৬১ সালে মেট্রো গোল্ডউইন মেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় টম অ্যান্ড জেরি কার্টুন তারা থার্ড পার্টি প্রাগ স্টুডিওর কাছ থেকে কিনবে। ১৯৭০ সালে বিল হান্না ও জো বারবেরা আবার টম অ্যান্ড জেরি নির্মাণে ফিরে আসেন। ১৯৯২ সালে গান ও সংলাপসহ টম অ্যান্ড জেরির একটি মিউজিকাল ফিল্ম মুক্তি পায়। ২০০৬ সালে জো বারবেরা ও ২০১১ সালে বিল হান্না মারা যান।

২০১৫ সালের বিবিসি জরিপে দেখা যায় ব্রিটেনে প্রাপ্ত বয়স্কদের মধ্যেও সবচেয়ে জনপ্রিয় টম অ্যান্ড জেরি।

বর্তমানে টম অ্যান্ড জেরি কার্টুন ছবির মালিকানা রয়েছে ওয়ার্নার ব্রাদার্সের কাছে। ২০১৯ সালের বড়দিনের উৎসবকে সামনে রেখে এই কার্টুন ছবির সর্বশেষ লাইভ অ্যাকশন চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে।

বিবিসি

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..