• সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০১:১৬ অপরাহ্ন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ নাচোলে দরিদ্র পরিবারের শিশু মুনিরা বিরল রোগে আক্রান্ত

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯
  • ২১০

মোঃ শুভ/বাংলারজমিন২৪

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার বনবিভাগের পাশে গোডাউন পাড়ার দিনমজুর পিতা মাসুদুজ্জামান মামুনের সাড়ে তিন বছরের শিশু কন্যা তাসফিয়া জাহান মুনিরা জন্ম থেকেই এক বিরল রোগে আক্রান্ত হয়ে বেড়ে উঠছে। দরিদ্র পরিবারে জন্ম নেয়া শিশু তাসফিয়ার সর্ব শরীর লম্বা লম্বা পশমে আবৃত। আর দিন যতই গড়াচ্ছে পশমগুলিও বাড়তে বাড়তে পশুর মতো দেখাচ্ছে।

এ বিষয়ে শিশু তাসফিয়ার মা তানজিলা খাতুন জানান, শরীরের পিঠের ছোট্ট একটি টিউমার থেকে এটির উৎপত্তি। বর্তমানে সাড়ে তিন বছরের তাসফিয়ার সমস্ত শরীর পশুর মত লোমে ভরে গেছে। এমনকি মুখের ওপর এবং হাতের তালুতে কালসিটে দাগও ছড়িয়ে পড়েছে। এদিকে গরমের দিনে মুনিরার শরীর থেকে আগুনের মত তাপ বের হয়।ফলে দিনে ২ থেকে ৩ বার গোসল করাতে হয় তাকে। আর ভিজে কাপড় পরিয়ে দিন রাত
ফ্যানের নীচে রাখতে হয় এবং বিদ্যুৎ না থাকলে হাত পাখার বাতাস করতে হয়।

এ বিষয়ে শিশুর বাবা মামুম বলেন, শিশু তাসফিয়া যখন ৬ দিনের তখন তার এই সমস্যাটি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকদের অবহিত করলে চিকিৎসকরা একটি বোর্ড বসিয়ে এটি একটি বিরল প্রকৃতির চর্ম রোগ বলে সনাক্ত করেন এবং তাসফিয়ার বয়স ৩/৪ বছর হলে তবেই তাকে উন্নত চিকিৎসার দেবার পরামর্শ দেন।

কিন্তু পরিবারের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো না থাকায় বর্তমানে হোমিও চিকিৎসা করানো হচ্ছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। আর তাই সরকারিভাবে এবং সমাজের বিত্তবানদের কাছ থেকে আর্থিক সহযোগীতা পেলে ভারতে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা করাবেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের জানান তাসফিয়ার বাবা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..