• শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন

স্বজনদের ফেলে যাওয়া শতবর্ষী বৃদ্ধার ঠাই হলো বৃদ্ধাশ্রমে

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৪১ বার পঠিত

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ- অবশেষে ১৪ দিন পর উদ্ধার হওয়া সেই শতবর্ষী বৃদ্ধার ঠাঁই হতে যাচ্ছে ময়মনসিংহের একটি বৃদ্ধাশ্রমে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুর রেলওয়ে স্টেশনে ১৪ দিন খোলা আকাশের নিচে পড়ে থাকার পর কয়েকজন হৃদয়বান মানুষের চেষ্টায় শতবর্ষী ওই বৃদ্ধা মায়ের ঠাঁই হয় গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এরপর বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের প্রচেষ্টায় অবশেষে একটি সুন্দর ঠিকানা হতে যাচ্ছে ময়মনসিংহের ভালুকার সাড়া মানবিক সংস্থায় (সামাস)।

সামাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফুল মালেক (পথশিশু মালেক) এবং সিরাগঞ্জের কৃতি সন্তান (মানবতার ফেরিওয়ালা) মামুন বিশ্বাস বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিষয়টি জানার পর বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) এজেডএম নুরুল হকের সঙ্গে দেখা করে ওই বৃদ্ধাকে বৃদ্ধাশ্রমে নেওয়ার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেন।

তবে উদ্ধার হওয়া শতবর্ষী বৃদ্ধার শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করে কয়েকদিন ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখার পর তাকে বৃদ্ধাশ্রমের স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

২৯ ডিসেম্বর রহনপুর রেল স্টেশনের ২ নম্বর প্লাটফর্মের পাশের একটি তেঁতুল গাছের নিচে ওই বৃদ্ধাকে ফেলে রেখে যায় দুই ব্যক্তি। স্থানীয়দের ধারণা বৃদ্ধার পরিবারের সদস্যরাই একটি ভ্যানে করে তাকে গাছের নিচে ফেলে রেখে যায়। তবে বৃদ্ধা এতোটাই দুর্বল যে, তিনি তার নাম-পরিচয়ও জানাতে পারেননি। এছাড়া প্রচণ্ড শীতে জবুথবু বৃদ্ধার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত দুর্বল হওয়ায় তাকে গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

পরে সাংবাদিকদের মাধ্যমে খবর পেয়ে ওই শতবর্ষী বৃদ্ধার দায়িত্ব নেন রহনপুর তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল মালেক, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) তৌহিদুল ইসলাম ও পুলিশের বিশেষ শাখার (ডিএসবি) নুরুন্নবী।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..