• বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০, ১২:৪৩ পূর্বাহ্ন

রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ আর কুয়াশা

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১৩৪

বাংলারজমিন২৪/অনলাইন ডেস্কঃ কয়েকদিন ধরে চলছে টানা শৈত্যপ্রবাহ। সঙ্গে কুয়াশার দাপট। তবে আজকের কুয়াশা আগের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে বলেই মনে হচ্ছে। গতকাল তাপমাত্রা কিছুটা বেশি অনুভূত হয়। মানুষের ভেতর স্বস্তি ফেরে। সেই স্বস্তি যেন মিলিয়ে গেল আজ। চারদিক ছেয়ে আছে কুয়াশায় মিহিন চাদরে।

সড়কে বের হয়েই ভিরমি খাওয়ার অবস্থা। সকাল নাকি সন্ধ্যা- হঠাৎ করে তা ঠাওর করা কঠিন। একেবারে কাছের জিনিসও স্পষ্ট নয়। মাঝে মধ্যে দুই একটি গাড়ি পাশ কাটিয়ে চলে যাচ্ছে সন্তর্পনে; খুব ধীরে, এবং হেডলাইট জ্বালিয়ে।

শৈত্যপ্রবাহ চলাকালে প্রথম দুই দিন কুয়াশার আড়ালে ছিল সূর্য। যেমন কনকনে ঠাণ্ডা তেমনি ছিল কুয়াশার। গতকাল সোমবার (১৩ জানুয়ারি) বেলা খানিকটা বাড়লে রাজধানীতে দেখা মেলে সূর্যের। এরপর আজ মঙ্গলবার আবার কুয়াশাঢাকা সকাল পেয়েছে রাজধানীবাসী। তাপমাত্রা একটু বাড়লেও শীতের কামড়ও রয়েছে বেশ। তবে আজ ঠাণ্ডা গতকালকের চেয়ে কিছুটা কম।

রাজধানীতে সকালে ঘরের বাইরে বের হয়ে এমন দৃশ্য চোখে পড়েছে মানুষের। রাস্তাঘাটে রিকশাসহ যানবাহনের সংখ্যা অনেক কম। জরুরি কাজ ছাড়া মানুষ বাইরে বের হচ্ছে না। আগের দিন তাপমাত্রা কিছু বেশি অনুভূত হয়েছিল। ফলে আজ রাজধানীতে ঘরের বাইরে বেরিয়ে খানিকটা অপ্রস্তুত নগরবাসী।

সকাল পৌনে ৯টায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত সূর্যের কোনো পাত্তাই নেই। উপরন্তু একই অস্পষ্টতা চারদিকে। এর মধ্যেই থেমে থেমে নগরবাসীকে ছুঁয়ে যায় কুয়াশায় ঘেরা ঘন বাতাস। বায়ু দূষণের এই শহরে বিপর্যস্ত রাজধানীবাসী বাড়তি শ্বাসকষ্টের মুখোমুখি হচ্ছে কুয়াশার কারণে।

এদিকে, গত শনিবার থেকে দেশের উত্তরাঞ্চলসহ বিস্তীর্ণ অঞ্চলে কনকনে শীত অনুভূত হচ্ছে। যেটি আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত অব্যাহত।

গতকাল সোমবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল তেঁতুলিয়ায় ৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা টেকনাফে ২৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, যশোর ও চুয়াডাঙ্গা অঞ্চলসহ রংপুর বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকবে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আরো বলা হয়, মধ্যরাত থেকে দুপুর পর্যন্ত সারা দেশে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। দিনে তাপমাত্রা ২-৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে। আর পরবর্তী ৭২ ঘণ্টায় রাত ও দিনের তাপমাত্রা বাড়তে পারে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..