• সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:২২ অপরাহ্ন

সরাইলে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও জন্মশতবার্ষিকী আলোচনা সভায় হট্রগোল!

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১৪৬

সুমন আহম্মেদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ
হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে গতকাল শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা। আলোচনা সভায় উপজেলা আওয়ামীীগের এক নেতার অনুসারীরা ক্যাপ ও গেঞ্জির দাবিতে হট্টগোল করেছে।

উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকাল ১০ টার দিকে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণ থেকে আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু হয়। সকাল ১০টায় ১ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য সুশৃঙ্খল একটি শোভাযাত্রা (র‌্যালি) হয়েছে। স্কুল কলেজের কয়েক সহস্রাধিক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহনে অনুষ্ঠিত র‌্যালিকে স্থানীয় প্রবীন আ’লীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধারা সরাইলের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ও ঘুছানো বলে আখ্যায়িত করছেন। বেলা ১১ টার দিকে ইউএনও এ এস এম মোসার সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সহিদ খালিদ জামিল খানের সঞ্চালনায় সভায় বেলা ১১ টায় আলোচনা সভা শুরু হলেও উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটির এক নম্বর সদস্য ফরহাদ রহমান কয়েকজন সমর্থক নিয়ে আলোচনা সভায় উপন্থিত হন বেলা সোয়া এগারোটায়। এ সময় সমর্থকরা তাঁর পক্ষে নানা স্লোগান দিতে থাকে। এরই মধ্যে একজন সমর্থক আনন্দ শোভাযাত্রার কেপ ও গেঞ্জির দাবিতে সভায় হট্টগোল শুরু করেন। এতে বেশ কিছু সময় সভায় অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। এতে সভায় উপস্থিত গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ বিব্রতরোধ করেন। পরে ইউএনও এস এম মোসার হস্তক্ষেপে সভা পুনরায় চালু হয়।

মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সহিদ খালিদ জামিল খানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন- সহকারি কমিশনার (ভূমি) ফারজানা প্রিয়াংকা, আ’লীগের আহবায়ক অ্যাডভোকেট নাজমুল হোসেন, সরাইল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মৃধা আহমাদুল কামাল, মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ বদর উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মো. মগবুল হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান আবু হানিয়, জেলা পরিষদের সদস্য পায়েল হোসেন মৃধা, আ’লীগ নেতা ফরহাদ রহমান মাক্কি, অ্যাভোকেট জয়নাল উদ্দিন, কৃষকলীগের সভাপতি মো. শফিকুর রহমান, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শের আলম মিয়া, স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক মো. হোসেন, মো. ইকবাল হোসেন ও ছাত্রলীগ নেতা শরিফ প্রমুখ। বক্তারা বলেন, শুধু দেশ ও জনগণের জন্য জাতির জনক জেল জুলুম নির্যাতন বরণ করে নিয়েছেন। আজ জাতিসংঘ শেখ মুজিবকে ‘বিশ্ববন্ধু’ খেতাবে ভূষিত করেছে। উনার স্বপ্নের সোনার বাংলা, ক্ষুধা, দারিদ্র ও আত্মনির্ভশীল জাতি গঠনের লক্ষ্যে সুযোগ্য উত্তরসূরি জননেত্রী শেখ হাসিনা দিনরাত নিরলস ভাবে কাজ করছেন। দেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। আরো এগিয়ে যাবে। আজকে দেশের জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকলে মিলে দেশের প্রত্যেকের জায়গায় কাজ করার শপথ করতে হবে। শিক্ষার্থীদের সঠিক ইতিহাস তোলে ধরার লক্ষ্যে উপজেলা চত্বরে বঙ্গবন্ধুর জীবন-ভিত্তিক স্থির চিত্র ও প্রদর্শন করা হয়েছে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..