• রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০৫:৫২ অপরাহ্ন

নড়াইলে নবগঙ্গা ডিগ্রি কলেজের ছাত্রী অপহরণ, গ্রেফতার-১

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৩৬

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধি

নবগঙ্গা ডিগ্রি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণির ছাত্রী অপহর’ণ মামলার আসামি তামিম মোল্যাকে (২০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। লোহাগড়া থানার এসআই মিলটন কুমার দেবদাসের নেতৃত্বে দিবাগত রাত সাড়ে ১০ টার দিকে তাকে কুমড়ি গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়। তামিম নড়াইলের লোহাগড়ার তালবাড়িয়া দক্ষিণপাড়ার দুলাল মোল্যার ছেলে।

গত ৩ ডিসেম্বর দুপুরে নড়াইলের দিঘলিয়া পেট্রোল পাম্পের পাশে তালবাড়িয়া গ্রামের জাহিদ ও জান্নাতের (২২) নেতৃত্বে ১০ থেকে ১২ জন সমবয়সী তরুণ কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে। পরে পাশের উলাগ্রাম থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

অপহরণের শিকার দিঘলিয়া পূর্বপাড়ার ওই কলেজ ছাত্রী জানান, তালবাড়িয়া গ্রামের জান্নাত (২২) নামে এক যুবক দীর্ঘদিন ধরে তাকে উত্যক্ত করছিল। ঘটনার দিন (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে এইচএসসির নির্বাচনী পরীক্ষা শেষে বাড়িতে ফেরার পথে দিঘলিয়া তেল পাম্পের পাশে চারটি মোটরসাইকেল ও একটি ইজিবাইকে ১০-১২ জন তরুণ এসে তাকে অপহরণ করে। প্রথমে কলেজছাত্রীর হাত ও পা ধরে ইজিবাইকের ভেতরে ফেলে দেয় তারা। পরে হাত ও পা বেঁধে ফেলে এবং মুখে কাপড় পুরে দেয়। এ সময় ওই ছাত্রীর সঙ্গে থাকা তার বড় ভাইকে অপহরণকারীরা জাপটে ধরে পেছন থেকে হাত, পা ও মুখ বেঁধে মারধর করে। পরে ভাইকে ঘটনাস্থলে ফেলে রেখে যানবাহনে করে কলেজছাত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যায় তারা।

নড়াইলের লোহাগড়া থানার এসআই মিলটন কুমার দেবদাস, আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে জানান, (৩ ডিসেম্বর) উলা গ্রাম থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়। তবে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় এজাহার নামীয় দুইজনসহ অজ্ঞাতনামা আসামি রয়েছে। এর মধ্যে তামিম মোল্যাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

অন্যদিকে বিভিন্ন পেশার মানুষ জানান, দিঘলিয়া এলাকায় একটি তেল পাম্পের পাশে কলেজছাত্রীকে অপহরণের ঘটনা ঘটে। ওই তেল পাম্পের সিসিটিভির ফুটেজ পাওয়া গেলে অপহরণের ঘটনায় জড়িতদের সহজে চিহিৃতকরণসহ ঘটনা সম্পর্কে পুলিশ বিশদ ভাবে জানতে পারত। তদন্তের স্বার্থে কাজে লাগত পারত।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..