• সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ১০:১৫ অপরাহ্ন

বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে খুন-ধর্ষণ বাড়ছে: নুর

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৫৪

মুহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনঃ

স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রুম্পা হত্যার বিচারের দাবিতে শনিবার (৭ ডিসেম্বর) শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ।

এসময় সংগঠনটির কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক ও ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর বলেন,”বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে দেশে খুন, ধর্ষণ, নির্যাতন নিপীড়ন বাড়ছে।”

তিনি বলেন,” বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণে রাষ্ট্রীয় নির্যাতন, নিপীড়নমূলক শাসনতন্ত্রের বিরুদ্ধে ভয়ে কথা বলতে পারছে না জনণগ, কেউ প্রতিবাদ করলে শুধু ফেইসবুকেই দেখছে। নানাভাবে মামলা হামলা হুমকি দিয়ে তাদের দমিয়ে রাখা হয়েছে। আজ আমাদের জাগতে হবে। সকল জায়গায় দুঃশাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ গড়ে তুলতে হবে। ”

ভিপি নুর বলেন,” রাষ্ট্রীয়ভাবে অতিদ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন না করলে এরকম ঘটনা ঘটতেই থাকবে। রুম্পা হত্যার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন করে দ্রুত অপরাধীদের বিচারের আওতায় না আনা হলে সারাদেশের ছাত্রসমাজ রাজপথে নামবে। ”

এসময় ভিপি নুর সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যার বিচার আদায় করতে না পারায় সাংবাদিক সমাজের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

মানববন্ধনে সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন, ফারুক হাসান, আবু হানিফ, তারেক, এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার মাহফুজুর রহমান ও মোঃ শাকিলসহ বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন বলেন, ‘প্রতিটা প্রতিষ্ঠানে ধর্ষণ, ইভটিজিংয়ের মত ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে । কিন্তু এসব অপকর্মের বিচার নাই, প্রতিকার নাই।”

তিনি বলেন,”যেখানে একজন পুলিশের মেয়ে নিরাপদ নয়, সেখানে আমাদের মা বোন নিরপাদ নয়। সাধারণ জনগণ নিরাপদ নয়।”

ফারুক হাসান বলেন,”আজকে দেশের একজন মানুষ ঘর থেকে বের হওয়ার পর ঠিকভাবে ঘরে ফিরতে পারবে কিনা তার গ্যারান্টি নেই। আজকে আদালত আছে কিন্তু ন্যায়বিচার নেই।”

ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী ফাতেমা আক্তার বলেন, ‘এ দেশের প্রধানমন্ত্রী একজন নারী হওয়ার পরও আজকে ধর্ষণ নির্যাতন হয় অহরহ।’

তিনি বলেন,’প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী হয়েও যদি এসব বন্ধ করতে না পারেন, নারীদের না বুঝেন তবে এ দেশে কখনো উন্নয়ন হবে না।’

গত বুধবার রাতে সিদ্ধেশ্বরী এলাকার রাস্তা থেকে শারমিনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এক ভাই, এক বোনের মধ্যে শারমিন ছিল বড়। তাঁর পিতা রোকনউদ্দিন হবিগঞ্জের একটি পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..