• শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন

রবিবার সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৯৭

বাংলারজমিন/ডেস্ক রিপোর্ট: কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আগামীকাল রোববার ঢাকাসহ সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি। খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে সরকার জঘন্য নাটক করছে বলে অভিযোগ করেছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যৌথ সভা শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি সরকারকে নাটক বাদ দিয়ে খালেদা জিয়ার জীবন রক্ষার জন্য জামিনে মুক্তির আহ্বান জানান। অন্যথায় দেশের জনগণ এই অপরাধের কোন ক্ষমা করবে না বলে জানান তিনি।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগের হাতে বারবার গণতন্ত্র হত্যা হয়েছে। গায়ের জোরে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসে জনগণের সাথে সরকার প্রতারণা করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। আগামীকাল ঢাকা মহানগরের থানায়-থানায় ও সারাদেশে জেলা পর্যায়ে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দেন মির্জা ফখরুল।

এ সময় ফখরুল সরকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘ভয় দেখিয়ে লাভ নেই। দেশের জনগণ জেগে উঠেছে। যে কোনো সময় সরকারের পতন অনিবার্য। অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি দিন।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আওয়ামী লীগের মনোভাব দেখলে মনে হয় তারাই একমাত্র মুক্তিযুদ্ধের ঠিকাদার। অথচ মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা গণতন্ত্র তারা সেটাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। আমরা যে গণতন্ত্রের স্বপ্ন দেখে স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছি সে স্বপ্ন তারা শেষ করে দিয়েছে। যে দলটি মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছে তাদের হাতেই বারবার মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা গণতন্ত্র ধ্বংস হয়েছে। তারা ৭৫ সালে বাকশাল কায়েম করেছে সব রাজনৈতিক দল বিলুপ্ত করেছে। আবার ২০০৮ সালে ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে এখন পর্যন্ত জনগণের ম্যান্ডেট ছাড়া ক্ষমতা দখল করে আছে বন্দুকের জোরে।’

তিনি বলেন, ‘যে নেত্রী সারাজীবন গণতন্ত্র ও মানুষের স্বাধীনতার জন্য লড়াই করেছে তাকে মিথ্যা মামলায় অন্যায়ভাবে আটক করে রেখেছে। ১৯৭১ সালে এই বেগম খালেদা জিয়া পাক বাহিনীর হাতে বন্দী হয়েছিলেন।’

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..