• মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১০:০১ পূর্বাহ্ন

কুকুরের মুখ থেকে নবজাতককে উদ্ধার করলেন এসআই

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯
  • ২০৩

 

 স্টাফ করেসপন্ডেন্ট/বাংলারজমিন২৪

চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ বাদামতলী এলাকায় ভোরে জনশূন্য রাস্তায় পড়ে চিৎকার দিয়ে কাঁদছিল এক নবজাতক। নবজাতককে ঘিরে বসে ছিল কয়েকটি কুকুর। এরইমধ্যে শিশুটিকে নিয়ে টানাটানি শুরু করে দেয় কুকুরগুলো।

এমন দৃশ্য দেখার সঙ্গে সঙ্গে কুকুরগুলোকে তাড়িয়ে নবজাতককে উদ্ধার করেন এক পুলিশ সদস্য। এরপর নবজাতকটিকে নিয়ে হাসপাতালে যান ওই  পুলিশ সদস্য।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

পরে জানা যায়, শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া সেই পুলিশ সদস্যের নাম মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি ডবলমুরিং থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই)।

ঘটনার বিবৃতি দিয়ে তিনি বলেন, রাতে ডিউটি পালনকালে দলের সহকর্মীদের সঙ্গে আক্তারুজ্জামান সেন্টারের সামনে দাঁড়িয়ে ছিলাম। এ সময় রাস্তার উল্টো দিকে সোনালী ব্যাংকের সামনে দুটি কুকুর মারামারি করতে দেখি। তখন দেখে অন্য আরেকটি কুকুর দলের সঙ্গে ভিড়ে মুখে কিছু একটা নিয়ে টানাটানি করছে। হঠাৎ দেখি সে পুটলিতে একটি সদ্যজাত শিশুর হাত-পা দেখা যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘ওই দৃশ্য দেখার সঙ্গে সঙ্গে দৌড়ে গিয়ে কুকুরটির মুখ থেকে বাচ্চাটিকে ছিনিয়ে নিই। এ সময় ওই রাস্তায় প্রাতঃভ্রমণে বের হওয়া এক নারীর কোলে কান্নারত বাচ্চাকে দিই। একটি টং দোকান থেকে কাপড় নিয়ে বাচ্চাটাকে মুড়িয়ে ওই নারীসহ আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে যাই। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা শিশুটিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

তিনি জানান, ‘শিশুটিকে দ্রুত চট্রগ্রাম মেডিকেলে যাওয়ার পথে শিশুটিকে উদ্ধারের স্থান থেকে একটু দূরে এক নারীকে উদ্ধার করি। তাকেও হাসপাতালে নিয়ে যাই। পরে জানতে পারি ওই নারীই শিশুটির মা ও তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন।’

চমেক সূত্র জানায়, বর্তমানে মা ও শিশু উভয়ই ভালো আছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..