• শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন

ভাঙা হৃদয় নিয়ে ভারত যাত্রা

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৪৪ বার পঠিত

মুশফিকুর রহিমের কথা ভেঙে ভেঙে যাচ্ছিল। আল-আমিন হোসেন সবশেষে ঢুকে নিজেকে আড়ালে রাখলেন। ভারত সফরে যাত্রার আগে বিমানবন্দরে চনমনে পাওয়া গেল না বাংলাদেশ দলকে। বিমর্ষ, বিষণ্ণ ও বিধস্ত লাগছিল গোটা দলকে। দেখেই বোঝা যাচ্ছিল সুনামির মতো কোনো ঝড়ে লণ্ডভণ্ড টিম বাংলাদেশ।

সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞায় হৃদয় ভেঙেছে ষোলো কোটি বাঙালির। সতীর্থরা সেই তালিকার বাইরে নন। ভাঙা হ্দয় নিয়ে ভারত মিশন শুরু করল বাংলাদেশ। আজ বিকেল তিনটায় বিমান বাংলাদেশের ফ্লাইটে দিল্লির উদ্দেশে রওনা হয় মাহমুদউল্লাহর দল। ৩ নভেম্বর দিল্লিতে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে ভারত-বাংলাদেশ দ্বিপক্ষীয় সিরিজ।

বিমানবন্দরে যারাই টুকটাক কথা বলেছেন প্রত্যেকে ব্যথিত সাকিবের জন্য। সবার এক কথা, সাকিব ফিরবেন আরো ভালোভাবে। সাকিব দলের সবচেয়ে বড় তারকা, এ কথা বিশ্বাস করেন তার সতীর্থরাও। তাকে ছাড়া দল হারায় চালিকাশক্তি। তবুও থেমে যেতে চান না টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া মাহমুদউল্লাহ।

তিন টি-টোয়েন্টির পর বাংলাদেশ দুটি টেস্ট ম্যাচও খেলবে। টেস্ট দল যাবে ৮ নভেম্বর। এ সফরে প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। ভারতের জন্যও দিবারাত্রির টেস্টের অভিজ্ঞতা হবে এটিই প্রথম। কলকাতার ইডেন গাডেনে ম্যাচটি শুরু হবে ২২ নভেম্বর।

আইপিএলে খেলার সুবাদে ভারতের মাটিতে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি অভিজ্ঞতা সাকিবের। সেই সাকিবকে ছাড়া বাংলাদেশ খেলবে শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে। কতটুকু পারবে বাংলাদেশ? অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বলে গেলেন, ‘ছোট ছোট সুযোগগুলো নিতে হবে। সেগুলোর শতভাগ ব্যবহার করতে হবে। তাহলে ভালো কিছু পাওয়া সম্ভব। আমরা ম্যাচও জিততে পারব।’

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..