• শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:০৮ অপরাহ্ন

নীলফামারীতে আরো ১৫ সহ ডেঙ্গু আক্রান্ত ৬৭ জন

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১০ আগস্ট, ২০১৯
  • ৬৬ বার পঠিত

মহিনুল ইসলাম সুজন/বাংলারজমিন২৪

নীলফামারী বিশেষ প্রতিনিধিঃ নীলফামারী জেলায় শুক্রবার(৯ আগস্ট) আরো ১৫ জনের ডেঙ্গু জ্বর শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে গত ১৬ দিনে (২৫ জুলাই থেকে) জেলায় ৬৭জন ডেঙ্গু রোগী আক্রান্ত হলেন।

শনাক্ত ওই ১৫ জনের মধ্যে নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, জেলা সদরের চড়াইখোলা ইউনিয়নের মোল্লাপাড়া গ্রামের রহমত আলী(২৬), ডোমার উপজেলার গোমনাতি ইউনিয়নের উত্তর আমবাড়ি গ্রামের মোমিনুর ইসলাম(১৭), একই গ্রামের মারিফুল ইসলাম(২০)। বাকী অন্যান্যরা জেলার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কথা জানায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

গত বৃহস্পতিবার(৮ আগস্ট) ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন পাঁচ জন। তাদের মধ্যে শুক্রবার পর্যন্ত জেলা সদরের কুন্দপুকুর ইউনিয়নের সুটিপাড়া গ্রামের আবেদীন(৩০), কচুকাটা ইউনিয়নের বামনাবামনি গ্রামের আব্দুল কাদেরের(১৬) চিকিৎসা চলছে। অপর তিন জনের মধ্যে দুই জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর এবং এক জন সুস্থ্য হওয়ায় তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

জেলায় গত ২৫ জুলাই দুইজন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হলেও এর পর থেকে গত ১৬ দিনে জেলায় ডেঙ্গু রোগে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়য় ৬৭ জনে। এর মধ্যে নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সখ্যা ২৮ জন। তাদের মধ্যে বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন পাঁচ জন। সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ জন এবং রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে ৮ জনকে।

হাসপাতালের চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়ে বাড়িতে ফিরেছেন জেলা সদরের টুপামারী ইউনিয়নের রামগঞ্জ গ্রামের সোহাগ হোসেন(১৯), পলাশবাড়ি ইউনিয়নের তরণীবাড়ি গ্রামের রবীন্দ্র নাথ রায়(৩২), লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়নের লক্ষ্মীচাপ গ্রামের রায়হান ইসলাম(১৭), জেলা শহরের মার্কাস মসজিদপাড়া গ্রামের মে মুহিদ(১১), কচুকাটা ইউনিয়নের বাজিতপাড়া গ্রামের মঞ্জুরুল হক(২৮), চওড়াবড়গাছা ইউনিয়নের কিষামত চওড়া গ্রামের সাইফুল ইসলাম(২৫), একই ইউনিয়নের ভাঙ্গামাল্লি গ্রামের আলম মিয়া(২৬), রামনগর ইউনিয়নের দোলাপাড়া গ্রামের আব্দুর রহিম(২৫), চওড়াবড়গাছা ইউনিয়নের কিসামত দুলুয়া গ্রামের সুজন রায়(১৫), ডোমার উপজেলার ধরনীগঞ্জ গ্রামের হরিদাস রায়(২৯), জেলা শহরের গাছবাড়ি এলাকার পপি অক্তার(২০), পুরাতন স্টেশনপাড়া গ্রাামের মহসীন আলী(১৮), রামনগর ইউনিয়নের বাহালীপাড়া গ্রামের মাজেদুল ইসলাম(৩০), একই গ্রামের দুলু মিয়া(২২) ও জেলা শহরের সরকারপাড়া গ্রামের আজিনুর রহমান(২২)।

সিভিল সার্জন রনজিৎ কুমার বর্মন বলেন, শুক্রবার(৯আগস্ট) ডেঙ্গুতে শনাক্ত ১৫ জনসহ গত ১৬ দিনে জেলায় ৬৭ জন ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। তারা সকলে ঢাকায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এলাকায় এসেছে। তাদের মধ্যে কেউ হাসপাতালে, কেউ বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছে, কেউ সুস্থ্য হয়েছে, আবার অনেকে জেলার বাইরের হাসপাতালে গুলেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন। ডেঙ্গু যাতে না ছড়ায় সে ব্যাপারে জনগনকে সচেতন করা হচ্ছে ।

 

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..