• বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৯:২১ অপরাহ্ন

আমরা নিজেরাই অপরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন ভবন ও স্থাপনা গড়ে তোলার মাধ্যমে তীব্র যানজট সৃষ্টি করেছি : মেয়র আতিক

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২
  • ৫৭

রাজধানীর তীব্র যানজটের জন্য মূলত বিভিন্ন সংস্থার সমন্বয়হীনতা দায়ী। এই যানজট থেকে রেহাই পেতে হলে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। যানজট নিরসনে সংশ্লিষ্ট সকল বিভাগের সম্মিলিতভাবে কাজ করার কোনো বিকল্প নেই বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর গুলশান-২ ডিএনসিসির নগর ভবনে মোহাম্মদপুরস্থ বিআরটিসি বাস ডিপো সংলগ্ন ইন্টারসেকশন প্রশস্থকরনের লক্ষ্যে বিআরটিসির সঙ্গে ডিএনসিসির সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মেয়র এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ‘আমরা নিজেরাই অপরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন ভবন ও স্থাপনা গড়ে তোলার মাধ্যমে তীব্র যানজট সৃষ্টি করেছি। অতএব পরিকল্পিতভাবে আমাদের কাজ করতে হবে। বিচ্ছিন্নভাবে কাজ করলে সমস্যা সমাধান সম্ভব নয়।’
উত্তর সিটি করপোরেশনের আওতাধীন মোহাম্মদপুর, আসাদ এভিনিউ, সাত মসজিদ রোড, বেড়িবাঁধ বাঁশবাড়ি সড়ক এবং শেরেবাংলা রোড হতে আগত যানবাহন সমূহের নির্বিঘ্ন চলাচল, যানজট নিরসন এবং নিরাপদে পথচারী চলাচলের সুবিধার জন্য মোহাম্মদপুরস্থ বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) বাস ডিপো সংলগ্ন ইন্টারসেকশন প্রশস্থকরনের লক্ষ্যে বিআরটিসির সঙ্গে ডিএনসিসির সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলামের উপস্থিতিতে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম রেজা এবং বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের পক্ষে চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে ডিএনসিসির প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহ. আমিরুল ইসলামসহ কাউন্সিলর ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ডেস্ক রিপোর্ট: সূত্র-বিডি প্রতিদিন

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..