• রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

যে কোনো মূল্যে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি ঠেকাতে চায় ইসরায়েল

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৭৯

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

যুক্তরাষ্ট্রকে সঙ্গে নিয়ে যে কোনো মূল্যে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি ঠেকানোর অঙ্গীকার করেছেন ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ। তবে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত তেহরান পরমাণু আলোচনার বিকল্প কিছু ভাবছে না বলে জানিয়েছেন ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এদিকে, বাস্তবস্মমত প্রস্তাব নিয়ে ভিয়েনা আলোচনায় ফেরার আহ্বান জানিয়েছে জার্মানি।

ইরানের সঙ্গে পাঁচ বিশ্ব শক্তি ও জার্মানির পরমাণু চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করতে জোর চেষ্টা চালাচ্ছে চুক্তি সংশ্লিষ্ট দেশগুলো। গেল সপ্তাহেই অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় সপ্তম ধাপের আলোচনা শুরু হলেও চুক্তিতে সই করা দেশগুলোর নিজ নিজ অবস্থানে অটল থাকার কারণে খুব বেশি অগ্রগতি হয়নি আলোচনায়। ইরানের ওপর আরোপ করা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে আসছে তেহরান।

আলোচনায় ইরানের আন্তরিকতা নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এন্টনি ব্লিঙ্কেন প্রশ্ন তোলায় পাল্টা জবাবে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দাবি করে, ইরানি প্রতিনিধিদল যতটা নমনীয়তা নিয়ে ভিয়েনা সংলাপে যোগ দিয়েছিল অন্য পক্ষগুলো তা করেনি। আগামীতে ইরানের প্রধান পরমাণু আলোচক আলী বাকেরি কানি এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের উপ মহাসচিব এনরিক মোরা আলোচনার সুনির্দিষ্ট তারিখ ঠিক করবেন বলেও জানায় তেহরান।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান আমরা সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা নিয়ে পরমাণু কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছি। আমরা ২০ শতাংশ সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদনের যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম সে অনুযায়ী প্রক্রিয়া চলছে। অথচ ইউরোপীয় ইউনিয়ন বলছে আমাদের সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদনের মাত্রা ৯০ শতাংশ যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ ছড়ানো হচ্ছে।

তবে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে যে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তা অগ্রহণযোগ্য বলে জানিয়েছে জার্মানি। সোমবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, বাস্তবসম্মত প্রস্তাব নিয়ে আসলে আবারও আলোচনায় বসবে জার্মানি। সময় শেষ হওয়ার আগেই নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে প্রস্তাব নিয়ে আসার আহ্বান জানায় বার্লিন।

এদিকে, ইরানকে পরমাণু অস্ত্র নির্মাণে বরাবরের মতো প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল। সোমবার ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ বলেন, পরমাণু চুক্তি পুনরজ্জীবিত করার যতই চেষ্টা হোক না কেন ইরানকে পরমাণু অস্ত্র নির্মাণ থেকে বিরত রাখতে বদ্ধপরিকর নাফতালি বেনেট ও বাইডেন প্রশাসন।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..