• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন

জামাই-শালার রসায়ন

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩০

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

মেহেবুব স্টুডিওতে রাত তখন প্রায় ৯টা। ট্রিম করা দাড়িতে নতুন লুকে সালমান। পরনে জিনস, গেরুয়া টি–শার্ট, আর তার ওপরে চেক শার্ট। মেহেবুব স্টুডিওতে সালমান খানের মুখোমুখি হলেন প্রথম আলোর মুম্বাই প্রতিনিধি। উপলক্ষ ভাইজানের নতুন ছবি ‘অন্তিম: দ্য ফাইনাল ট্রুথ’। অ্যাকশনধর্মী এই ছবিতে সালমানের সঙ্গে আছেন তাঁর ভগ্নিপতি আয়ুশ শর্মা। পর্দায় জামাই-শালার রসায়ন দেখতে তাই উদ্‌গ্রীব হয়ে আছেন সালমানপ্রেমীরা।

সাক্ষাৎকারের শুরুতে স্বাভাবিকভাবেই তাই উঠে এল তাঁর ভগ্নিপতি অর্থাৎ বোন অর্পিতার স্বামী আয়ুশের কথা। এর আগে সালমান খানের ব্যানারের ছবি লাভ যাত্রীর মাধ্যমে বলিউড ছবির আঙিনায় পা রেখেছিলেন আয়ুশ।

এবার একই ছবিতে একসঙ্গে তাঁরা। আয়ুশ সম্পর্কে সালমান বলেন, ‘এই ছবিতে আয়ুশের কাজ দেখে আমি অবাক হয়ে গিয়েছি। আমি খুশি যে আমার পরিবারের একটা ছেলে এত ভালো কাজ করেছে। আপনি ওর মধ্যে এতটুকু খুঁত খুঁজে পাবেন না, এতটা ম্যাচিউরিটির সঙ্গে ও অভিনয় করেছে।’

আয়ুশের সূত্র ধরেই উঠে এল অর্পিতার প্রসঙ্গ। অনেক কম বয়সে সংসারের দায়িত্ব তুলে নিয়েছেন আয়ুশ। তিনি দুই সন্তানের বাবা। নিজের কাজ আর পরিবারের মধ্যে সমতা বজায় রেখে চলেছেন আয়ুশ।

তবে ভাইজান মনে করেন, এর পিছনে অর্পিতার ভূমিকা অনেকখানি। এ প্রসঙ্গে এই বলিউড সুপারস্টার বলেন, ‘ও স্ত্রী হিসেবে অত্যন্ত যত্নশীল। আয়ুশের খুব খেয়াল রাখে। আবার বাচ্চাদের দারুণভাবে সামলায়। আমি কখনো ভাবতে পারিনি যে ও স্ত্রী হিসেবে এতটা কেয়ারিং হবে। শুধু আয়ুশের ডায়েট নয়, ওর ফ্যাশনের ব্যাপারেও অর্পিতা বিশেষ খেয়াল রাখে। আয়ুশ কোথায় কী পরবে, তা ওই ঠিক করে দেয়।’

আপনার পোশাক কে নির্বাচন করেন, জানতে চাইলে মুচকি হেসে সালমান বলেন, ‘আমি তো “বিইং হিউম্যান”-এর পোশাক পরি। নতুন যা আসে, সেটা কিছুদিন পরার পর অন্যকে দিয়ে দিই। আবার আমি পুরানো লটের পোশাকগুলো পরি।’ ‘অন্তিম’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন পরিচালক আর অভিনেতা মহেশ মঞ্জরেকর।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..