• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন

আগামীকাল থেকে টিকা পাবে ১২-১৭ বছরের শিক্ষার্থীরা

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২১
  • ৬৭

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

রাজধানীর ৮টি কেন্দ্রে সোমবার (১ নভেম্বর) থেকে স্কুলের শিক্ষার্থীদের করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকাদান কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের ফাইজার-বায়োএনটেকের এ টিকা দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, মোট আটটি কেন্দ্র থেকে এ টিকাদান কার্যক্রম চলবে। এর মধ্যে আগামীকাল সোমবার একটি কেন্দ্র উদ্বোধন হবে, পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে বাকি সাত কেন্দ্রে এ টিকা দেওয়া হবে। এ ছাড়া দ্রুতই এই কার্যক্রম প্রতিটি জেলায় শুরু করা হবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘এরই মধ্যে ওই বয়সসীমা শিক্ষার্থীদের তালিকা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হাতে এসেছে। সেই তালিকা চূড়ান্তকরণের শেষে পাঠানো হয়েছে আইসিটি মন্ত্রণালয়ে। সেখানে তালিকাভুক্ত শিক্ষার্থীদের ডাটা সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন করার কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।’

প্রাথমিকভাবে ১২টি কেন্দ্র নির্বাচন করা হলেও পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা না থাকায় আটটি কেন্দ্রকে টিকাদানের জন্য নির্বাচিত করা হয়। তবে, শেষ পর্যন্ত কোন চারটি স্কুল নির্বাচিত হওয়া থেকে বাদ পড়েছে তা এখনো জানা যায়নি।

প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত ১২টি কেন্দ্রের মধ্যে রয়েছে- হার্ডক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, সাউথপয়েন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজ, চিটাগং গ্রামার স্কুল, কসমো পলিটন ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজ,আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ঢাকা কমার্স কলেজ, কাকলি হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সাউথ ব্রিজ স্কুল, স্কলাসটিকা স্কুল, বিএইচ খান স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং আহমেদ বাওয়ানী একাডেমি।

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছিলেন, প্রতিদিন ৪০ হাজার শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। পর্যায়ক্রমে সারা দেশেই এ কার্যক্রম চলবে।

স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকা দিতে এরইমধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর-মাউশি। শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সে তথ্য আইসিটি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে টিকার তথ্য ভাণ্ডারে যোগ হওয়ায় শিক্ষার্থীরা এখন নিবন্ধন করতে পারছে।

প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে পাঠানো তথ্য সুরক্ষা ওয়েবসাইটে অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় ঢাকা মহানগরীর শিক্ষার্থীদের জরুরি ভিত্তিতে টিকার নিবন্ধন করতে বলেছে মাউশি। সেজন্য সুরক্ষা ওয়েবসাইটের ‘নিবন্ধন (জন্মসনদ)’ মেনু বা ঠিকানায় নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে।

এ ঠিকানায় প্রবেশ করে জন্ম সনদ নম্বর, জন্ম তারিখ ও ক্যাপচা কোড নির্দিষ্ট স্থানে পূরণ করে ‘যাচাই করুন’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। পরবর্তী ফরমে ইংরেজিতে নাম এবং মোবাইল নম্বর দিতে হবে। এরপর বর্তমান ঠিকানা দিয়ে টিকা নেওয়ার কেন্দ্র নির্বাচন করতে হবে।

নিবন্ধনের সময় দেওয়া মোবাইল নম্বরে এসএমএসের মাধ্যমে পরে টিকা নেওয়ার তারিখ ও কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে টিকা নিতে হবে, তা জানানো হবে।
তথ্য দেওয়া শেষে এসএমএসে পাওয়া ওটিপি কোড দিয়ে ‘নিবন্ধন সম্পন্ন করুন’ বাটনে ক্লিক করে এই প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে।
সুরক্ষা ওয়েবসাইটের ‘টিকা কার্ড’ মেনুতে জন্মসনদ নম্বর ও জন্মতারিখ দিয়ে টিকা কার্ড সংগ্রহ করা যাবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..