• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:০৬ অপরাহ্ন

হাতিরঝিলের আদলে হবে গল্লামারীর নতুন সেতু

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২১
  • ৭৬

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

খুলনা শহরের প্রবেশদ্বার গল্লামারীতে নির্মিত নতুন ও পুরোনো দু’টি সেতু ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সড়ক বিভাগ। সেই সাথে ৫৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪ লেনের নতুন সেতু নির্মাণের প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে সংস্থাটি। নদীর দুই তীরে ইউলুপসহ হাতিরঝিলের আদলে তৈরি হবে নতুন এই সেতু। এর নকশা তৈরির কাজ করছে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

যানবাহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় ২০১৪ সালে গল্লামারীতে প্রায় ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ময়ুর নদীর ওপর থাকা একটি সেতুর পাশে নতুন একটি সেতু তৈরির কাজ শুরু হয়। যা শেষ হয় ২০১৬ সালে। তবে অপরিকল্পিতভাবে নদীর পানির উচ্চতা থেকে মাত্র ৫ ফুট উঁচুতে তৈরি হয় ব্রিজটি। এরপর নতুন করে শের ই বাংলা রোড চারলেনে উন্নীত করার কাজ শুরু হওয়ায় সেতুটি সড়ক থেকে নীচু হয়ে যাওয়ার শঙ্কা দেখা দেয়। ফলে এখানে আগেই থাকা সেতুটিসহ নতুন নির্মিত দু’টি সেতুই ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বর্তমানে সেতু দিয়ে চলাচলে নানা ভোগান্তিতে পড়ছেন সাধারণ মানুষ।

ভুক্তভোগীরা জানান, এই সেতুর আশপাশে চলাফেরায় অনেক কষ্ট হয়। ব্রিজটি যেকোনো মুহূর্তে ভেঙে পড়তে পারে। ব্রিজটি বর্তমানে চালক-যাত্রী উভয়েরই জন্যই ঝুঁকিপূর্ণ। এছাড়া এই সেতুর এখানে আসলেই জ্যামে পড়তে হয়। এতে অনেক বেশি সময় ব্যয় হয়।

এ বিষয়ে নগর পরিকল্পনাবিদ প্রকৌশলী আবিরুল জব্বার বলেন, নতুন এই সেতু নির্মাণ সম্পন্ন হলে দৃষ্টি কাড়বে পর্যটকদের। ব্রিজটি হবে হাতিরঝিলের আদলে।

নদী রক্ষা কমিশনের সুপারিশ ও বিআইডব্লিউএ’র মতামতের ভিত্তিতে নদী থেকে ১৫ ফুট উচ্চতায় নতুন সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে সড়ক বিভাগ।

খুলনা সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আনিসুজ্জামান মাসুদ বলেন, যদি এটা বাস্তবায়ন হয় তাহলে এটা একটা ভালো উদ্যোগ। সেই সাথে নদীটিও সচল থাকবে। এতে দৃষ্টিনন্দন হয়ে উঠবে নদীটি, সেই সাথে যোগ হবে ব্রিজের সৌন্দর্য।

চার লেনের নতুন এই সেতু নির্মাণের ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৬ কোটি টাকা। সেতুটির দৈর্ঘ্য হবে ৭৪ মিটার আর প্রস্থ ২২ মিটার।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..