• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:১৩ অপরাহ্ন

গ্যাস পাইপলাইনের অনুমোদনের জন্যই কি কলকাঠি নাড়ছেন পুতিন

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১
  • ৮৩

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

রাজনৈতিক কারণে যুক্তরাজ্যে গ্যাস সরবরাহ আটকে রাখেনি রাশিয়া। তবে সরবরাহ বাড়ানোর যে প্রতিশ্রুতি ছিল, তা কার্যকর হতে সময় লাগবে। বিবিসির একটি অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে এসব কথা বলেন যুক্তরাজ্যে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আন্দ্রেই কেলিন।

কোভিড মহামারি থেকে অর্থনীতি পুনরুদ্ধার পেতে শুরু করার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বব্যাপী গ্যাসের দাম বেড়েছে। যুক্তরাষ্ট্র উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যে বাসাবাড়িতে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম বেড়ে যাওয়ায় রাশিয়া হয়তো রাজনৈতিক অস্ত্র হিসেবে গ্যাস ব্যবহার করছে। তবে কেলিন বলেন, ‘অবশ্যই, আমরা রাজনৈতিক কারণে এটি বন্ধ করিনি। গ্যাসের সমস্যা পাম্পস্টেশনে আছে।’

যুক্তরাজ্যের গ্যাস ব্যবহারের প্রায় ৫ শতাংশ আসে রাশিয়া থেকে। তবে এটি ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রাকৃতিক গ্যাস আমদানির প্রায় অর্ধেক, বাকি অংশ নরওয়ে এবং আলজেরিয়া থেকে আসে। কিছু বিশ্লেষক মনে করছেন, নবনির্মিত ‘নর্ড স্ট্রিম ২’ গ্যাসলাইন প্রকল্পের দ্রুত অনুমোদনের জন্য রাশিয়া ইউরোপে সরবরাহ বন্ধ রাখতে পারে। ইউক্রেনকে এড়িয়ে সরাসরি জার্মানিতে রাশিয়ার গ্যাস সরবরাহের লক্ষ্যে এটি তৈরি হয়েছে। রাশিয়া ইউক্রেনের মাধ্যমে ইউরোপের কাছে গ্যাস বিক্রি করে। এটা এড়ানোর জন্যই এই প্রকল্প। তবে এই প্রকল্প ভূরাজনৈতিক ও পরিবেশগত ভিত্তিতে আপত্তির মুখে পড়েছে। এর ‘নর্ড স্ট্রিম ২’ অনুমোদনের জন্য জার্মানি ও ব্রাসেলসের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে রাশিয়া ইচ্ছা করে গ্যাস সরবরাহে লাগাম টেনে রাখায় এ সংকট তৈরি হয়েছে—এমন অভিযোগ উঠেছে রাশিয়ার বিরুদ্ধে। তবে ক্রেমলিন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, তারা গ্যাসকে ‘রাজনৈতিক হাতিয়ার’ হিসেবে ব্যবহার করছে না।

তবে ইউরোপে গ্যাসের দাম বাড়ার জন্য রাশিয়ার বিরুদ্ধে আনা এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল বলেছেন, তিনি এমন কোনো ঘটনা সম্পর্কে অবগত নন, যেখানে রাশিয়া গ্যাস সরবরাহের চুক্তিগত বাধ্যবাধকতা পূরণ করেনি। জার্মানি রাশিয়ার নর্ড স্ট্রিম-২ প্রকল্পকে সমর্থন করেছে এবং একে ভূরাজনৈতিক কৌশল নয়, একটি ব্যবসায়িক চুক্তি বলে দেখছেন তিনি।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, নর্ড স্ট্রিম ২-এর জন্য জার্মানির ওপর চাপ সৃষ্টি করতে রাশিয়া গ্যাস বন্ধ করছে বলে যে দাবি করা হয়েছে, তা পুরোপুরি ‘রাবিশ’ রাজনৈতিক অপপ্রচার।

পুতিনের কথার সুরেই আন্দ্রেই কেলিন বলেন, পাইপলাইনটি প্রস্তুত এবং আমরা জার্মানির কাছ থেকে চূড়ান্ত অগ্রগতি আশা করছি। যত তাড়াতাড়ি এটি ঘটবে তত দ্রুতই পাইপলাইন থেকে নতুন গ্যাস সরবরাহ আসবে।

রাশিয়া থেকে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহের প্রথম প্রকল্প নর্ড স্ট্রিম-১, যার নির্মাণকাজ শেষ হয় ২০১১ সালে। এরপর নর্ড স্ট্রিম-২ প্রকল্পটি চালু হওয়ার কথা রয়েছে এ বছর। এটির দৈর্ঘ্য ২ হাজার ৪৬০ কিলোমিটার।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..