• সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৭ অপরাহ্ন

কপাল খুলেছে মালিকের, সমালোচনা থামাতেই দলে সরফরাজ

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২১
  • ২০

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

টি-২০ বিশ্বকাপের দলে তিনটি পরিবর্তন আনলো পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। অভিজ্ঞতা ও বর্তমান ফর্মের বিচারে আজম খান ও মোহম্মদ হাসনিনের বদলে দলে নেওয়া হল দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সরফরাজ আহমেদ ও হায়দার আলিকে। অন্যদিকে রিজার্ভে থাকা ফখর জামানকে নিয়ে আসা হল মূল দলে। রিজার্ভে পাঠানো হল খুরশিদ শাহকে।

এছাড়াও পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেলেন দেশটির সবচেয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড় শোয়েব মালিক। সর্বশেষ সংযোজন হিসেবে তাকে দলে ভেড়ানো হয়েছে। জানা গেছে, তারকা ব্যাটসম্যান শোয়াইব মাকসুদের চোটের কারণে ছিটকে পড়ায় কপাল খুলেছে শোয়েব মালিকের।

পিসিবি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, “জাতীয় টি-২০ লিগে ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স বিচার করে এবং টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলে, হায়দার আলি, ফখর জামান ও সরফরাজ আহমেদকে বিশ্বকাপের দলে নেওয়া হল। এই তিন ক্রিকেটার দলের মধ্যে অনেকটা অভিজ্ঞতা সঞ্চার করবে। পাশাপাশি দলের ব্যালান্সটাও আরও ভালো হবে।”
সরফরাজের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে টিমের বাইরে রাখে হয়েছিল কেন, তা নিয়ে তীব্র সমালোচনা চলছিল। প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছিল পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজাকেও। পাকিস্তানের অধিকাংশ সাবেক ক্রিকেটারই সরফরাজের পক্ষে প্রশ্ন করেছিলেন। তাই কিছুটা বাধ্য হয়েই সরফরাজ আহমেদকে টিমে ফেরান হল।

এদিকে, শোয়াইব মাকসুদ জাতীয় টি-২০ লিগ খেলার সময় চোট পেয়েছেন। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের এমআরআই করা হয়েছে। রিপোর্ট দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বিশ্বকাপে দলের সঙ্গে তাকে পাঠানো হবে না। তার বদলি তাৎক্ষণিকভাবে শোয়েব মালিকের নাম ঘোষণা করে পিসিবি।

টি-২০ বিশ্বকাপে আগামী ২৪ অক্টোবর ভারতের সঙ্গে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে পাকিস্তান। বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতের বিরুদ্ধে এখনও জিতে উঠতে পারেনি পাকিস্তান। ১৯৯২ সালে যে ধারা শুরু হয়েছিল তা ২০১৯ পর্যন্ত বজায় আছে। এবার ভারতকে হারাতে মরিয়া পাকিস্তান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..