• সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩১ অপরাহ্ন

৯ বছর পর অপহৃত ব্যক্তি যাত্রাবাড়ী থেকে উদ্ধার!

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৪২

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

বরিশালের গৌরনদী থানার ৯ বছর আগের একটি অপহরণ মামলার ভিকটিমকে ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে উদ্ধার করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে মামলার আসামিরা।

আসামিদের দাবি অপহরণ মামলাটি ছিল একটি সাজানো নাটক। তাদের হেনস্তা করতেই মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তবে কথিত অপহৃত ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তার দাবি, যারা অপহরণ করেছিল, তারাই তাকে উদ্ধার করে থানায় সোপর্দ করেছে।

উদ্ধারকৃত রাসেল মৃধাকে বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) বরিশালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হলে আরেকটি অপহরণ মামলার আসামি হওয়ায় তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন বিচারক।

গৌরনদীর কলাবাড়িয়া গ্রামের ১৪ বছর বয়সের কিশোর ছেলে রাসেল মৃধাকে অপহরণ ও গুমের অভিযোগে ২০১২ সালে গৌরনদীর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন তার মা মনোয়ারা বেগম। এর আগে থেকেই কিশোর বয়সে একটি অপহরণ মামলার আসামি ছিল রাসেল। রাসেল অপহরণ মামলায় ১৪ জনকে অভিযুক্ত করে ২০১৩ সালে আদালতে অভিযোগপত্র দেন গৌরনদী থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক ফোরকান হোসেন। এই মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে ৫ জন আসামি দির্ঘদিন হাজতবাস করেন। বাকি ৯ জন এখনও পলাতক।

এ অবস্থায় গত ২০ সেপ্টেম্বর ঢাকার যাত্রাবাড়ী রায়েরবাগ থেকে কথিত অপহৃত রাসেলকে উদ্ধার করে গৌরনদী থানায় সোপর্দ করে মামলার আসামি এস. রহমানসহ তার সাথিরা।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গৌরনদী থানার তৎকালীন উপপরিদরশক ফোরকান হোসেন বলেন, তার আগে আরও ৩ জন কর্মকর্তা মামলা তদন্ত করেছেন। তিনি চতুর্থ কর্মকর্তা হিসেবে ১৪ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালতে ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেন। তদন্ত সঠিক ছিল বলে দাবি পুলিশ পরিদর্শক ফোরকানের।

এদিকে এই মামলার দুই আসামি মো. রায়হান মৃধা ও মো. আলামিনের দাবি রাসেলকে আত্মগোপন করিয়ে তাদের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা দেওয়া হয়েছে। মামলায় নির্দোষভাবে অনেকে কারাভোগ করেছে।

বুধবার দুপুরে তাকে ওই মামলায় বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে হাজির করে গৌরনদী থানা পুলিশ। এ সময় ট্রাইব্যুনাল এই মামলায় তাকে নিজ জিম্মায় জামিন দেন। তবে রাসেল আরেকটি অপহরণ মামলার আসামি হওয়ায় ট্রাইব্যুনাল ওই মামলায় তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন বলে জানান নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর মো. ফয়জুল হক।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..