• সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০১:৪৮ অপরাহ্ন

এবার পাকিস্তান সফর নিয়ে দোলাচলে ইংল্যান্ড

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩১

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হোম সিরিজ নিয়ে পাকিস্তানের বোর্ড, ক্রিকেটার থেকে শুরু করে সমর্থকদের মাঝে রোমাঞ্চের শেষ ছিল না। কিন্তু নিরাপত্তাজনিত কারণে শেষমেশ দ্বিপাক্ষিক সিরিজটি বাতিল করে দেয় সফরকারীরা।

এদিকে, সিরিজটি বাতিল হয়ে যাওয়ার পরপরই শঙ্কা দেখা দিয়েছে ইংল্যান্ডের পাকিস্তান সফর নিয়েও। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির বরাতে জানা গেছে, নিরাপত্তা ইস্যু নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।

বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার ভেতর পাকিস্তান সফর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে তারা। এক বিবৃতিতে ইসিবি জানায়, ‘আমাদের নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি নিয়ে পর্যালোচনা করছি। আমরা ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পাকিস্তান সফর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে চলে আসব।’

আগামী মাসে ইংল্যান্ডের ছেলেদের দলের পাশাপাশি নারী ক্রিকেটারদেরও পাকিস্তান সফরের কথা ছিল। ইসিবির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘আমরা নিউজিল্যন্ডের সিদ্ধান্তের বিষয়ে অবগত আছি। আমাদের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা টিম গোটা পরিস্থিতি বুঝতে পাকিস্তানে রয়েছে। আমরা তাদের সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখছি। আশা করছি শীঘ্রই সিদ্ধান্ত নিতে পারব।’

নিরাপত্তা ইস্যুতে দীর্ঘ সময় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বন্ধ ছিল পাকিস্তানের মাটিতে। নানা মহলে ধরনা দিয়ে দেশটিতে আবারও আন্তর্জাতিক খেলা ফিরিয়েছিল পিসিবি। ১৮ বছর পর পাকিস্তানে পা রেখেছিল নিউজিল্যান্ড দল। সবই চলছিল ঠিকঠাক। রাওয়ালপিণ্ডিতে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে নামার অপেক্ষায় বাবর আজমরা।

কিন্তু হুট করে খবর আসে, ক্রিকেটারদের টিম হোটেল থেকে বের না হতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। শুরুতে একাধিক খেলোয়াড়ের করোনা আক্রান্তের গুঞ্জন উঠেছিল। পরে জানা যায়, বোর্ডের নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দলের পরামর্শে মাঠে যেতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে কিউইরা।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্নের সঙ্গে যোগাযোগও করেন। কিন্তু, তাতেও কাজ হয়নি। রাওয়ালপিণ্ডিতে হামলার শঙ্কায় সিরিজ না খেলার সিদ্ধান্তে অটল থাকে তারা। আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে সিরিজ বাতিলের বিষয়টি নিশ্চিত করে দু’দেশের ক্রিকেট বোর্ড।

কিউইদের আচরণে উত্তপ্ত পাকিস্তানের ক্রিকেটাঙ্গণ। চরম আক্ষেপ নিয়ে টুইট করেছেন বাবর আজম। বলেছেন, এই সিরিজ পাকিস্তানি ক্রিকেট ভক্তদের মুখে হাসি ফোটাতে পারতো। নিজ দেশের গোয়েন্দা সংস্থার ওপর আস্থার কথাও জানান অধিনায়ক।

বেজায় চটেছেন রমিজ রাজা। জানিয়ে দিয়েছেন, এতো সহজে ছাড়ছেন না। আইসিসির কাছে শাস্তি দাবি করবেন পিসিবির নতুন চেয়ারম্যান। টুইটারে লিখেছেন, খেলোয়াড় এবং সমর্থকদের জন্য খারাপ লাগছে। নিরাপত্তাহীনতার যুক্তি দিয়ে একতরফা সিদ্ধান্ত নিয়ে একটা সফর বাতিল করে দেওয়াটা খুবই হতাশাজনক ও বিরক্তিকর। বিশেষ করে, নিরাপত্তাহীনতার কারণটা কী, তা কিন্তু তারা বলেনি। কোন দুনিয়ায় বাস করে নিউজিল্যান্ড? তারা কিন্তু আইসিসিতে আমাদের জবাব শুনবে।

এর আগে এই সিরিজে ২০ শতাংশ দর্শক মাঠে প্রবেশের অনুমতি দিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। করোনার বৈশ্বিক সংক্রমণের পর এবারই প্রথম মাঠে বসে খেলা দেখার সুযোগ ছিল পাকিস্তানের দর্শকদের। তবে শেষ পর্যন্ত তা আর হয়ে উঠলো না।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..