• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১৭ পূর্বাহ্ন

মার্কিন সহায়তাকারী আফগান জঙ্গিদের আশ্রয় দেবে না রাশিয়া ও তুর্কি

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৩ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৩

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

আফগানিস্তানে আটকেপড়াদের উদ্ধারে বাণিজ্যিক বিমান সহায়তার নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। রোববার (২২ আগস্ট) পেন্টাগন জানায়, ১৮টি বিমান আফগানিস্তান থেকে নিরাপদে মানুষকে সরিয়ে তৃতীয় কোনো দেশে নিয়ে যাবে।

এদিকে আফগান শরণার্থীর বেশে কোনো জঙ্গিকে ঠাঁই দেবে না রাশিয়া বলে মন্তব্য করেছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। একই কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানও।

কাবুল দখলের এক সপ্তাহ পার হয়ে গেলেও এখনও সরকার গঠন করতে পারেনি তালেবান। বিভিন্ন দলের সঙ্গে একের পর এক বৈঠক করলেও এখন পর্যন্ত কোনো সমাধানে যেতে পারেনি গোষ্ঠীটি। এ অবস্থায় কার্যত সরকারহীন রয়েছে আফগানিস্তান।
সরকার গঠন নিয়ে তালেবান যখন ব্যস্ত, তখনও দেশ ছাড়তে কাবুল বিমানবন্দরে ভিড় করছে হাজারো আফগান। রোববার তাদের সহায়তার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। বলেন, যারাই যুক্তরাষ্ট্রকে সহযোগিতা করেছে তাদেরকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হবে।

এক বিবৃতিতে পেন্টাগন জানিয়েছে, এরই মধ্যে, ঝুঁকিতে থাকা আফগান নাগরিকদের তৃতীয় কোনো দেশে সরিয়ে নিতে বেশ কয়েকটি বাণিজ্যিক বিমানকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্র শরণার্থীদের অন্য দেশে সরিয়ে নিতে পদক্ষেপ নিলেও আফগানদের আশ্রয় দিতে চান না রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন। রোববার এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তার শঙ্কা, শরণার্থীর আড়ালে প্রবেশ করতে পারে আফগান জঙ্গি।
পুতিন বলেন, ভিসা ছাড়া কাউকে দেশে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। আমাদের প্রতিবেশী দেশগুলোকেও একই ব্যবস্থা নিতে হবে। শরণার্থীর ছদ্মবেশে জঙ্গিদের উত্থান হোক তা আমরা চাই না।
পুতিনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান। আফগানিস্তানে পশ্চিমাদেশগুলোর হয়ে কাজ করা মানুষকে গ্রহণ করবে না তুরস্ক বলে জানিয়েছেন তিনি।
এর মধ্যেই, আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারকে ভুল সিদ্ধান্ত বলে অ্যাখ্যা দিয়েছেন সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ার। এমন সিদ্ধান্তকে বিপদজ্জনক বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..