• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৪৭ পূর্বাহ্ন

এবার ভয়াবহ আগুনে দিশেহারা গ্রিসের মানুষ

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৮ আগস্ট, ২০২১
  • ৭৩

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

গেল ৩০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে গ্রিসের রাজধানী এথেন্সের বনাঞ্চল। তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলজুড়ে টানা ১০ দিন ধরে জ্বলতে থাকা দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে দেশটির ৪৪টি প্রদেশের দুই শতাধিক স্থানে।

এছাড়াও নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার উত্তরাঞ্চলে নতুন করে ছড়িয়ে পড়া দাবানল। পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে, এক অঞ্চলের আগুন নিয়ন্ত্রণে না আসতেই দাবানল ছড়িয়ে পড়ছে নতুন কোন স্থানে।

গ্রিসের রাজধানী এথেন্সের বাইরের বনাঞ্চলগুলোতে ছড়িয়ে পড়া ভয়াবহ আগুনে দিশেহারা সাধারণ মানুষ। দাবানলের তীব্রতা ক্রমেই বাড়তে থাকায় আগুনের কাছে এ যেন অসহায় আত্মসমর্পণ দমকলকর্মীদের।
শুক্রবারও অঞ্চলটির সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যাওয়ায়, আগুন নিয়ন্ত্রণে বেড়ে পেতে হচ্ছে দমকলকর্মীদের। বাড়ছে হতাহতের সংখ্যাও। শুধু তাই দমকলকর্মী নয়, আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছেন স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকরাও।
এরইমধ্যে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে একাধিক গ্রাম ও অঞ্চল। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অসংখ্য ঘরবাড়ি ও স্থাপনা। দগ্ধ হয়ে মারা গেছে বহু গবাদিপশুও। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জরুরি সতর্কতা জারি করা হয়েছে অন্তত ছয়টি এলাকায়।

এদিকে আগুন দ্রুত একের পর এক আবাসিক এলাকায় ছড়িয়ে পড়ায় স্থানীয়দের নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়াও অব্যাহত রয়েছে। উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছেন সেনা ও নৌ বাহিনীর সদস্যরাও।
আগুনে এক প্রকার ধ্বংস হয়ে গেছে আজিয়ান সাগর উপকূলবর্তী পর্যটন নগরী মারমারিস। অঞ্চলটিতে এরইমধ্যে পুড়ে গেছে ৫৫ হাজার হেক্টরের বেশি বনভূমি। বাড়ছে আগুনে দগ্ধ হয়ে হতাহতের সংখ্যা।

দাবানল পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে মুলা প্রদেশের আরেক পর্যটন নগরী বোদ্রামেও। অঞ্চলটিতে এরইমধ্য একাধিক হোটেল ও রিসোর্ট পুড়ে ছাই হয়ে যাওয়ায় হুমকির মুখে পড়েছে সেখানকার পর্যটন ব্যবসা।
এদিকে আগুনে পুড়ছে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার উত্তরাঞ্চল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এরইমধ্যে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে প্লুমাস কাউন্টির গ্রিনভিল এলাকার শত শত বাসিন্দাকে। আগুন পুড়ে ছাই হয়ে গেছে গ্রিনভিলের শতবর্ষের পুরানো একাধিক ঐতিহাসিক ভবন ও স্থাপনা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..