• বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন

আমি খুব পরিচ্ছন্ন জীবনযাপন করি: চয়নিকা

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৭ আগস্ট, ২০২১
  • ৬৫

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

চিত্রনায়িকা পরীমনিকে আটকের পর বিভিন্ন মহলে আলোচনায় ছিলেন নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী। তাকে উদ্দেশ্য করে বিভিন্ন স্ট্যাটাসও দিয়েছেন অনেকে।

শুক্রবার (৬ আগস্ট) সময় টেলিভিশনের একটি অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে এসেছিলেন তিনি। দিয়েছেন বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর। অনুষ্ঠান শেষে নীচে অপেক্ষমান সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছেন এ নির্মাতা।

পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো প্রসঙ্গে চয়নিকা বলেন, ‘তার সঙ্গে আমার কাজের সম্পর্ক। কাজ করতে গিয়ে সম্পর্ক হয়েছে। পরীমনি সুইট, ট্যালেন্টেট, ডেডিকেটেড একজন মেয়ে। কাজের ক্ষেত্রে যেটা হয়েছে, শুটিংয়েই তো থাকতে হয়েছে। ওর ব্যক্তিগত যা যা কিছু সেগুলো আসলে ওর ব্যক্তিগত জায়গায় আছে। সেগুলো নিয়ে আমাকে বলেনি, আমারও জানার আগ্রহ হয়নি।’

সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ করে চয়নিকা বলেন, ‘আপনাদের জন্যই আমি আজকে চয়নিকা চৌধুরী। আপনাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। আপনাদের আমি অনেক ভালোবাসি। আমি এক রকম করে বলব, আপনারা আরেক রকম করে উপস্থাপন করবেন সেটা যেন না হয়।’
চয়নিকা চৌধুরী আরও বলেন, ‘প্রথম ঘটনায় পরীমনির বাসায় আমি গিয়েছিলাম। তার ৪১দিন পর আমার সাথে দেখা হয়েছে। সেখানে আমি এক ঘণ্টার মতো ছিলাম। ওর সঙ্গে আমার সুইট একটা সম্পর্ক, কাজের সম্পর্ক। একটা মেয়ের কেউ নাই, আমি তাকে স্নেহের চোখে দেখেছি, সে আমাকে মা ডাকে। ওই জায়গা থেকে একটা ভালোবাসা আছে।’

এক প্রশ্নের উত্তরে চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘আমি খুব পরিচ্ছন্ন জীবনযাপন করি। আমার ২০ বছরের ক্যারিয়ারে যত শিল্পী, কলাকুলশীর বিপদে-আপদে আমি ছিলাম। পাশে আগুন লেগে আছে, আমি বাড়িতে বসে থাকব। এমনটা আমি না, আমি যাই। মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়িয়ে কথা বললে অসুবিধা নাই তো। বিপদের সঙ্গে তো আমি যুক্ত না।’

পরে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটের দিকে রাজধানীর পান্থপথ সিগন্যালে চয়নিকার গাড়ির গতিরোধ করে পুলিশ। প্রায় ২০ মিনিট বাকবিতণ্ডার পর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পরিবারের জিম্মায় রাত ১০টা ৪৫ মিনিটে ছেড়ে দেওয়া হয় তাকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..