• বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৫:৩৩ অপরাহ্ন

ফোন করলেই বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছে দেবে পুলিশ

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১
  • ১৮

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

হটলাইনে ফোন করা মাত্র করোনায় আক্রান্তদের বাড়িতে বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছে যাচ্ছে। এ সেবা দিয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ ও সিটি করপোরেশন।
ফোন করলেই বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছে দেবে পুলিশ

করোনার এ সময়ে মানুষের সেবায় এগিয়ে এসেছেন ব্যবসায়ী ও সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে জড়িতরাও। বিনামূল্যে অক্সিজেন সুবিধা পেয়ে শ্বাসকষ্টে থাকা রোগীরা কিছুটা হলেও ফেলছেন স্বস্তির নিঃশ্বাস।
করোনার প্রকোপে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে রাজশাহী। গেল জুন মাস থেকে এ পর্যন্ত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে ৫৬০ জন। করোনায় অনেকের শ্বাসকষ্ট দেখা দেওয়ায় প্রয়োজন হচ্ছে অক্সিজেনের।
তবে সিলিন্ডার সংকটের পাশাপাশি উচ্চমূল্যের কারণে রোগীর স্বজনরা যখন হিমশিম খাচ্ছেন এমন সময় সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ।
পুলিশের দেওয়া হটলাইনে ফোন করা মাত্রই মহানগরীর মধ্যে করোনা রোগীর বাসায় বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে যার সুফল পেয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন প্রায় দুই শতাধিক রোগী।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, তারা অনেক উপকৃত হয়েছে। তারা জেনেছে যে আসলে এই দুঃসময়ে ২৩ হাজার টাকা দিয়ে একটা মানুষের পক্ষে অক্সিজেন সিলিন্ডার কেনা খুবই কষ্টসাধ্য।
এদিকে রাজশাহী সিটি করপোরেশন ১৪ জনের একটি টিম গঠন করেছে। তারাও হটলাইনে ফোন পাওয়া মাত্রই অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে ছুটছেন রোগীদের বাড়িতে। এতে কিছুটা হলেও করোনা রোগীর চাপ কমেছে রামেক হাসপাতালে।
রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাত ২ টা ৩ টার দিকে ফোন দিলেও পিকআপে করে অক্সিজেন সিলিন্ডার তুলে নিয়ে রোগীর বাড়িতে গিয়ে একবারে সেট করে দেওয়া হচ্ছে।
রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, বিষয়টি খুবই সাপোর্ট দিচ্ছে মানুষকে। তারা সাহসী হচ্ছে যে, বাসায় থাকি, বাসায় কিছুদিন অক্সিজেন নিই তারপরে যদি সমস্যা হয় হাসপাতালে আসব।
সিটি কর্পোরেশনের হটলাইন নম্বর ০১৭৫৪-৯০১৯০৩ এবং মেট্রোপলিটন পুলিশের হটলাইন নম্বর ০১৩২০-০৬৩৯৯৮

মহামারির এই দুঃসময়ে এমন সেবা পাওয়ায় কিছুটা হলেও স্বস্তিতে অসহায় রোগীর স্বজনরা। অন্যদিকে ব্যবসায়ী ও সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে জড়িতরা সংকটময় এমন পরিস্থিতিতে সবাইকে সাধ্যমত এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি মো. শামসুজ্জামান আওয়াল বলেন, বিত্তবানরা যেন এভাবে এগিয়ে আসেন। একটা সিলিন্ডার একজন মানুষের প্রাণ বাচাতে পারে।
সিটি করপোরেশন ও রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছে বর্তমানে ৪১০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার রয়েছে। আর ১০ লিটার সিলিন্ডারে ১ দশমিক ৬৩ ঘনমিটার অক্সিজেনের ধারণ ক্ষমতা রয়েছে যার বাজারমূল্য ১৪ থেকে ১৫ হাজার টাকা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..