• সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

মাদারীপুরে সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে মাছের দাম

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৫ জুন, ২০২১
  • ৬৯

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

মাদারীপুরে এক সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে সব ধরনের মাছের দাম। প্রতি কেজি ইলিশের দাম বেড়েছে ২০০-৩৫০ টাকা পর্যন্ত। রুই, কাতল, শিং, বোয়ালসহ অন্যান্য মাছের দামও বেড়েছে দেড় থেকে দুই গুণ। বাজার পরিস্থিতি সাধারণ ক্রেতাদের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ তারা। তবে, সরবরাহ কমের অজুহাত বিক্রেতা ও আড়তদারদের।

মাদারীপুর শহরের পুরানবাজার মাছের আড়ত। ভোর হলে যেখানে শত শত পাইকার ও আড়তদারের হাঁকডাকে আড়তে সরব হওয়ার কথা কিন্তু বর্তমানে সেখানে অনেকটাই সুনসান নীরবতা। কেনাবেচায় পড়েছে ভাটা। পুকুর, জলাশয় কিংবা ঘেরের মাছের সরবরাহ কম। ক’দিন ধরে আসছে না নদী ও সমুদ্রের মাছও। তাই বেড়েছে সব ধরনের মাছের দাম। এতে কমেছে পাইকারদের সংখ্যা।

আড়তদারদের বক্তব্য পাইকারি আড়তে মাছের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় এর প্রভাব পড়েছে খুচরা বাজারে।

শ্রমজীবী মানুষের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ তারা।

এদিকে মাদারীপুর পুরানবাজার মৎস্য আড়তদার সমিতির সহসভাপতি আব্দুল সেলিম হাওলাদার বলেন, একদিকে লকডাউনে পরিবহন সংকট অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে বিভিন্ন জেলার ঘেরের মাছ ভেসে যাওয়ায় চাহিদা অনুযায়ী বাজারে মাছের সরবরাহ কমেছে।

পুরানবাজার মৎস্য আড়তে প্রতি কেজি ইলিশ পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ৯০০ থেকে ১ হাজার ১০০ টাকা। রুই ও কাতল প্রতি কেজি ২৫০-২৮০ টাকা, শিং মাছ প্রতি কেজি ৬৫০-৮০০ টাকা, চিংড়ি প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮৫০ থেকে ১ হাজার টাকার ওপরে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..