• শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০২:১৮ অপরাহ্ন

ওয়েব কনফারেন্স বা ইন্টারভিউ চলার সময় কী পরা উচিত?

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১
  • ১২৫

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

আমাদের জীবনটা এক ধাক্কায় বদলে দিয়েছে অতিমারি, বাড়ির চার দেওয়ালই এখন আমাদের আরামের ঠিকানা এবং কাজের জায়গাও বটে। এতদিন অফিসের কাজ সেরে বাড়ি এসে যেখানে বিশ্রাম নিতেন, এখন সেখান থেকেই শুরু হচ্ছে সারা দিনের দৌড় ঝাঁপ। তাই ঘর আর বাইরের ফারাক বিশেষ নেই। তাই ওয়েব কনফারেন্স আমাদের জীবনের অতি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু সমস্যা হল, ওয়েব কনফারেন্সে বসার অভ্যেসটা আমাদের কারওই নেই, কেউই জানি না ঠিক কী পরলে ক্যামেরার সামনে দেখতে ভালো লাগবে, ক্যামেরা কতটা দূরে রেখে বসা উচিত। অনেকেই হয়তো ভাববেন যে এই জরুরি অবস্থায় ফ্যাশন নিয়ে মাথাব্যথা করার অবসর কার আছে? সেটাও ভুল। যদি আমরা এই পরিস্থিতিতে কাজ করতে বা মিটিংয়ের চাপ সামলাতে পারি, তা হলে পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রেও বিশেষ চিন্তাভাবনা প্রয়োগ করা উচিত।

প্রথমেই যেটা মনে রাখতে হবে তা হল, আপনার অফিসের যদি বিশেষ কোনও ড্রেস কোড থাকে, তা হলে সেটা মেনে চলা উচিত। হ্যাঁ, নিচে শর্টস বা পাজামা যা খুশি পরুন না কেন, উপরে একটা ধোপদুরস্ত টপ বা শার্ট পরা একান্ত প্রয়োজনীয়। টি-শার্ট বা ট্যাঙ্ক টপ চলবে না একেবারেই। এমন কিছু পরবেন না যা খুব রিভিলিং। একটু লুজ জামা পরা ভালো, তবে একেবারে বিরাট বড়ো কিছুও পরবেন না। শাড়ি বা সালওয়ার কামিজের মতো দেশি পোশাক অবশ্যই পরতে পারেন। হালকা কোনও গয়না পরতে পারেন কানে আর গলায়। খুব বড়ো বড়ো জংলা প্রিন্ট থেকেও দূরে থাকতে পারলে ভালো হয়। তার চেয়ে দেখতে নিশ্চিতভাবেই ভালো লাগে এক রঙের জামা।

এবার প্রশ্ন, এই ধরনের মিটিংয়ের সময় ল্যাপটপ বা ফোন কোথায় রাখা উচিত। পারলে জানলার কাছে কোথাও বসুন। অনেকেই খুব ক্যাজুয়ালি পছন্দের পানীয়ে চুমুক দিতে দিতে বা খাবার চিবোতে চিবোতেও মিটিং করেন, তবে সেটা দেখতে অতি কুৎসিত লাগে। জানলা দিয়ে যদি প্রাকৃতিক আলো আসে, তা হলে দেখতে ভালো লাগবে। ওয়েবক্যাম থাকবে আপনার আই-লেভেলের একটু উপরে। পিছনে যেন অগোছালো জামাকাপড় বা বইপত্রের স্তূপ না জমে থাকে, সেটা একটু দেখে নেবেন। আর দেওয়াল বা পর্দার রঙের সঙ্গে যেন পোশাকের রং মিশে না যায়, সেটাও নিশ্চিত করে নেওয়া দরকার।

হ্যাঁ, এই গরমে বাড়িতে থাকার সময়ে আমরা চুলটা টেনে মাথার উপর ঝুঁটি করে রাখতেই বেশি পছন্দ করি, সেটা আরামদায়ক তো বটেই। শ্যাম্পু করাও হয়ে ওঠে না আলসেমির জন্য। কিন্তু মিটিংয়ের আগে প্লিজ একটু পরিচ্ছন্ন হয়ে নিন। মুখে সামান্য টিন্টেড ময়েশ্চরাইজার লাগান, চুল আঁচড়ে নিন পরিষ্কার করে। লিপস্টিক দরকার নেই, তবে টিন্টেড লিপ বাম চলতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..