• বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন

গরমে ঘর ঠাণ্ডা রাখার ৭ উপায়

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৩ মে, ২০২১
  • ১০৭

বাংলারজমিন২৪.কম ডেস্কঃ

কয়েকদিনের তীব্র গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে জনজীবন। এসি ছাড়া বাঁচাই দায় হয়ে পড়েছে! কিন্তু এসির খরচ সবার পক্ষে বহন করা সম্ভব হয় না। বা সব জায়গায় এসিও নেই। কিন্তু জানেন কি এসি না চালিয়েই ঘর ঠাণ্ডা রাখা যায়? তাহলে জেনে নিন প্রাকৃতিক উপায়ে ঘর ঠাণ্ডা রাখার কিছু কৌশল।

লাইট:
টিউব লাইট জ্বালিয়ে রাখলে ঘর গরম হয়। তাই সম্ভব হলে কম আলোর এলইডি আলো ব্যবহার করুন। তাপ ছড়াবে কম।

টেবিল ফ্যান:
টেবিল ফ্যান রয়েছে বাড়িতে? প্রতিদিন দুপুরে ভ্যাপসা গরম থেকে বাঁচতে আপনার টেবিল ফ্যানটি জানালার কাছে নিয়ে চালিয়ে দিন। এটি বাইরের ঠাণ্ডা হাওয়া ভিতরে নিয়ে আসবে এবং ঘরের অসহনীয় গরম দূর হবে।

ভেন্টিলেটর:
ঘরে ভেন্টিলেটর থাকলে খুবই ভালো। তবে সেটি ভালো করে পরিষ্কার করে নিন।

বরফ রেখে ফ্যান চালান:
তাৎক্ষণিক এসির হাওয়া খেতে চান? টেবিল ফ্যানের সামনে গামলা ভর্তি বরফ রেখে ফ্যান চালিয়ে দিন। নয়তো একটি পানির বোতলে বরফ জমিয়ে ফ্যানের সামনে রাখুন। যখনই ফ্যান চালাবেন, বরফের ঠাণ্ডা হাওয়া ঘরকে সীতল করে তুলবে৷

পর্দা:
কাঠের জানলা হলে সমস্যা নেই। কিন্তু জানলা যদি কাঁচের হয় তবে গাঢ় রঙের পর্দা ব্যবহার করুন। হালকা রঙের পর্দা সূর্যের তাপ আটকায় না। জানলায় বা বারান্দায় ব্যবহার করুন খেসের পর্দা। খেস একরকমের ঘাস, তাপ আটকাতে সক্ষম। তাতে যদি একটু পানি ঢেলে দিতে পারেন, দেখবেন ঘর অনেক ঠাণ্ডা হয়ে গেছে।

ভেজা চাদর:
মোটা চাদর পানিতে ভিজিয়ে, শুকিয়ে নিয়ে, অল্প স্যাঁতসেতে ভাবটা রেখে পর্দার গায়ে সেঁটে দিতে পারেন। খসখসের বিকল্প হিসেবে ভালো কাজ করে।

বালিশ:
বিছানার চাদর ব্যবহার করুন হালকা রঙের পাতলা সুতির। তুলা তাপ টানে। তাই বালিশে ভরতে পারেন বাজরা বা চাল। গদির মাঝখানে একটা মাদুর পেতে রাখলে বিছানার গরম অনেকটাই কমে যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..