• শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০২:৩৮ অপরাহ্ন

পথে-ঘাটে জনস্রোত

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১
  • ১০৭

বৃষ্টি-মহামারিকে উপেক্ষা করেই যেন বাড়ি ফেরার যুদ্ধে নেমেছেন রাজধানী থেকে সাধারণ মানুষ। দিন শেষ করে সন্ধ্যায়ও পথে-ঘাটে জনস্রোত দেখা গেছে। কেউ হেঁটে, কেউবা রিকশায় করে ঘাটে পৌঁছানোর চেষ্টা করছেন। চেকপোস্ট, ব্যারিকেড দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না তাদের। ঘাটে ফেরি ভিড়লেই ওঠার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন নানা বয়সীরা।

মঙ্গলবার (১১ মে) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্তও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া, মহামারি কোনো কিছুই বাঁধ মানাতে পারছে না নদীঘাটের জনস্রোতকে। শিমুলিয়া ঘাটে ফেরি ভিড়তেই হুড়মুড় করে তাতে পাল্লা দিয়ে উঠছেন শত শত ঘরমুখো মানুষ। সেখানে নেই বিন্দুমাত্র সামাজিক দূরত্ব কিংবা স্বাস্থ্যবিধির বালাই। ঈদ করতে যেতে হবে প্রিয়জনের কাছে তাই স্বাস্থ্যঝুঁকিকে থোরাই কেয়ার। বেশি ভাড়া গুণতেও যেন অসুবিধা নেই তাদের।

একই অবস্থা দেখা গেছে সড়ক পথেও। বৃষ্টি মাথায় নিয়েই হাজার হাজার যাত্রী গাবতলী থেকে হেঁটে সাভারের দিকে যেতে দেখা যায়। এই মিছিলে শামিল শিশু-বৃদ্ধ সবাই। যাদের কেউ উত্তরাঞ্চলে কেউবা আবার যাবেন দক্ষিণাঞ্চলে। গাড়ি না পেয়ে অনেকেই রিকশায় চড়ে গন্তব্যের পথে যাত্রা শুরু করেছেন।

পথে পথে চেকপোস্ট থাকলেও মানুষের স্রোত সামাল দিতে হিমশিম অবস্থা পড়তে হচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের।

এদিকে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এবার ঈদে ছুটি সংক্ষিপ্ত করার পাশাপাশি সবাইকে কর্মস্থলে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

এ কারণে বুধবার (১২ মে) ২৯ রোজায়ও চাকরিজীবীদের ঢাকায় রাখতে সরকারি অফিস খোলা থাকবে বলেও জানান তিনি।

সরকারি নিয়মানুযায়ী, রমজান মাস ২৯ দিনে শেষ হলে তিন দিন আর ৩০ দিনে শেষ হলে ঈদের ছুটি থাকে চারদিন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই না কেউ ঢাকা থেকে বাইরে চলে যাক তাই ছুটি সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে, যাতে সবাই ঢাকায় থেকে যায়। বুধবারও অফিস চলবে। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে একই কথা বলা হয়েছে।

ঈদের ছুটিতে এভাবে গ্রামে ছুটে গেলে করোনাভাইরাস মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়তে পারে, এ কারণেই ঈদের ছুটি সংক্ষিপ্ত হয়েছে। যদি ঈদ বৃহস্পতিবারও হয় তাহলে কোনো সমস্যা নেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..