• শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০২:১০ অপরাহ্ন

নীলফামারীতে নিজ বাড়ি থেকে মাদক সম্রাটের লাশ উদ্ধার।

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ৭২

সুজন মহিনুল, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় মাদক সম্রাট খ্যাত মিজানুর রহমান (৪৮) নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় পুলিশ আবু তালেব (৫৫) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। নিহত মিজানুর উপজেলার ছোটরাউতা গোডাউনপাড়া মহল্লার মৃত রেয়াজুল ইসলাম ভাদুর ছেলে।বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল)দুপুরে জেলার মর্গে লাশের ময়নাতদন্ত করা হয়।এর আগে বুধবার (২১ এপ্রিল) রাত ৯টায় উপজেলার কাজিপাড়া গ্রামের তার নিজ বাড়ি থেকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানায়, মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ১৬টি ও তার স্ত্রী সহিদা বেগম রূপার বিরুদ্ধে ২০টি মাদক মামলা চলমান রয়েছে। তারা স্বামী-স্ত্রী প্রতিটি মাদক মামলায় জেলহাজতে থাকার পর জামিনে ছিলেন।এ ঘটনায় মিজানুরের মেয়ে মেঘলা মনি আক্তার (২০) বাদী হয়ে ডোমার থানায় মামলা করেছেন।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, বুধবার দুপুর ২টায় মিজানুরকে বাসায় রেখে মা সহিদা বেগম রূপার সঙ্গে মনি আক্তার ডাক্তার দেখাতে রংপুরে যান। ডাক্তার দেখিয়ে রাত ৮টায় বাড়িতে ফিরে আসেন তারা। বাড়ির দরজা খোলা পেয়ে ভেতরে প্রবেশ করে দেখতে পান, মিজানুর ঘরের একটি চেয়ারে ঘুমন্ত অবস্থায় বসে আছেন। তাকে ডাকাডাকি করলেও কোনো সাড়া দেননি তিনি। এসময় কাছে গিয়ে দেখা যায়, তার গলায় শ্বাসরোধ করার চিহ্ন রয়েছে। মেঝেতে পড়ে রয়েছে অজ্ঞাত ব্যক্তির একটি চশমা।

খবর পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (ডোমার-ডিমলা সার্কেল) জয়ব্রত পাল, ডোমার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজার রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করেন। এছাড়া তারা আবু তালেব নামের এক ব্যক্তিকে তাৎক্ষণিকভাবে আটক করতে সক্ষম হন। ডোমার থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, শ্বাসরোধে কেউ তাকে হত্যা করে চেয়ারে বসিয়ে রেখে পালিয়ে গেছে। মেঝেতে পরে থাকা চশমাটি আবু তালেবের হওয়ায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..