• রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৪:২১ অপরাহ্ন

কুলাউড়ার সেই জুমে ফের হামলা, আটক ২

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২১
  • ৯৩
আব্দুল কুদ্দুস, কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধিঃ
কুলাউড়ার কর্মধা ইউনিয়নের সাহেবটিলা পান জুমটি সামাজিক বনায়নের নামে বন বিভাগ ও বস্তিবাসীর দখল চেষ্টা ঘটনার ৩ দিনের মাথায় জুমটিতে ফের হামলা ও জুম থেকে পান তোলার সময় পুঞ্জির গারো জনগোষ্ঠী ২ জনকে আটক করেছে। আটকের পর তাদের জবানবন্দি ভিডিওধারণ করেন তারা। শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। পরে আটক ২ জনকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়।
স্থানীয় গারো জনগোষ্ঠীরা জানান, ১৩ এপ্রিলের পর ২য় দফায় শুক্রবার বিকেলে জুমে ফের হামলা চালায় ১৮ জনের একটি দুর্বৃত্তের দল। পুঞ্জির লোকজন এসময় টহলে ছিলেন। দুর্বৃত্তের দল জুমে পান কাটা শুরু করলে স্থানীয় গারো সম্প্রদায়ের লোকজন তাদের ধাওয়া করেন। এসময় তারা ২ জনকে আটক করলেও বাকী ১৬ জন পালিয়ে যায়। পুঞ্জিবাসীর হাতে আটক ওই দুজনের নাম আরমান (১৯) ও শাহ আলম (৩০)। এই দুইজন তাদের স্বীকারুক্তিতে বলেন, গত ১৩ এপ্রিল নলডরি বিট কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম জনপ্রতি ৫শ’ টাকা করে সাহেবটিলায় সামাজিক বনায়নের নামে জুম দখল ও পুঞ্জিতে হামলা চালানোর জন্য নিয়ে আসেন। এর আগে ১৩ এপ্রিল নলডরি বিট কর্মকর্তা জহিরুল ইসলামের নেতৃত্বে ১৫০ জনের একটি দল জুমে ঢুকে শতাধিক পান গাছ ও প্রায় ২০টি বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে ফেলেন। এ ঘটনায় পুঞ্জির হেডম্যান গ্রিনাল রংদি ১১ জনের নাম উল্লেখ করে কুলাউড়া থানায় মামলা দায়ের করেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আব্দুর রহিম জানান, প্রাথমিক তদন্তে সাহেবটিলা জুমে আগের গাছ কাটার সত্যতা পাওয়া গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..