• রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:০১ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রকে নেতৃত্ব দেওয়ার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রাজারহাটে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত। ভোলাহাটে চূড়ান্ত মিনি নাইট ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত যশোরে ইয়াবাসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী আটক উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় নৌকা মার্কায় ভোট দিন: জাহাঙ্গীর কবির নানক শুমারি তথ্য হাকালুকিতে কমেছে অতিথি পাখি হালদা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনের ১২টি নৌকার ইঞ্জিন ধ্বংস রাজশাহী এ্যাডভোকেটস বার এসোসিয়েশন নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয়ে বিএনপি’র অভিনন্দন কুলাউড়ায় ছাত্র ইউনিয়নের সম্মেলন সম্পন্ন ফুলপুরে স্বপ্নযাত্রা ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরন বিতরন 

বিদ্যুতের খুঁটিজুড়ে অন্যান্য তারের জটলায় বাড়ছে ঝুঁকি,কমলগঞ্জ অবৈধভাবে ১৩ টি  বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

আলমগীর হোসেন, (কমলগঞ্জ) মৌলভীবাজারঃ 

কমলগঞ্জ উপজেলার  বিভিন্ন গ্রাম-গঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটিগুলো ডিশ, ইন্টারনেট আর জেনারেটরের তারে অনেকটাই ঢাকা পড়ে গেছে। নিয়ম অমান্য করে বিদ্যুতের খুঁটিজুড়ে অন্যান্য তারের জটলায় বাড়ছে ঝুঁকি। শুধু তাই নয়, মাঝে-মধ্যেই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। অপরিকল্পিতভাবে খুঁটির সঙ্গে জড়িয়ে রাখা তারগুলোর কারণে শর্টসার্কিটের সৃষ্টিও হচ্ছে। ফলে বিভিন্ন এলাকায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা বিদ্যুতবিহীন থাকতে হয়। আর এ বিষয়ে নীতিমালা না থাকায় কোনো পদক্ষেপ নিতে পারছে না বিদ্যুৎ-সেবা নিশ্চিতকারী সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান। অবৈধভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে বিদ্যুৎ

সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিটি খুঁটিই বিদ্যুতের তারের চাইতে অন্যান্য তারের জটলা। এই তারগুলোর বড় অংশ ডিশ লাইন, জেনারেটর ও ইন্টারনেট লাইনের। কোন তার কিভাবে পেঁচানো রয়েছে তা বোঝারও উপায় নেই। কোনো কোনো খুঁটিতে বর্ধিত তারগুলোর গোল করে পেঁচিয়ে রাখা হয়েছে। এই তারগুলোর থেকে মাঝে-মধ্যেই শর্টসার্কিট হয়ে থাকে। অনেক সময় ট্রান্সফরমারের সঙ্গে লেগে ট্রান্সফরমারে আগুন লেগে যায়। নষ্ট হচ্ছে রাষ্ট্রীয় যন্ত্র। আবার অনেক ক্ষেত্রে ফিউজ কেটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বিদ্যুৎ বন্ধ থাকে। এতে একদিকে যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রাষ্ট্রীয় যন্ত্রাংশ তেমনি দুর্ভোগ ও নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে বিদ্যুৎ গ্রাহক এবং পথচারীরা। ডিশ লাইনের রেগুলেটার দেওযা  হচ্ছে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ। ঘাটতি হচ্ছে পল্লী বিদ্যুৎ।

নাম প্রকাশ না করার মুন্সি বাজার শমশেরনগর ভানুগাছ বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, প্রায় সময় বিভিন্ন লাইনের ছেঁড়া তার ঝুলে থাকে বোঝার উপায় থাকে না সেটা বিদ্যুতের, ডিশের না জেনারেটরের তার। এতে করে আতঙ্ক থেকে যায়।

এদিকে শমশেরনগর  পল্লী বিদ্যুৎ অভিযোগ কেন্দ্রের ইনচার্জ লাইনম্যন  মো কামাল হোসেন , অপরিকল্পিতভাবে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে অন্য সার্ভিস প্রোপাইটারদের বিভিন্ন ক্যাবল  থাকায় পোলে উঠতে যেমন সমস্যা হয়ে থাকে তেমনই সংযোগ মেরামতসহ বিভিন্ন কাজে ও বিঘ্ন ঘটে।

 শুধু তাই নয ডিশ লাইনের রুকবক্সে নরমাল তার দিয়ে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ায় লাইনের কাজ করতে গিয়ে শক খেতে হয়। অপর দিকে কোন তার ছিঁড়ে ঝুলে থাকলে বোঝার উপায় থাকে না সেটা বিদ্যুতের না অন্য কোনো তার। ফলে স্থানীয় ব্যবসায়ী বা পথচারীরা আতঙ্কিত হয়ে থাকে তার ঝুলে থাকা পর্যন্ত।

এদিকে অবৈধভাবে  পল্লি বিদ্যৎ লাইন হতে গত কয়েক সাপ্তাহ ধরে   অবৈধভাবে ১৩ টি  বিদ্যৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। তার পরেরও বন্ধ হচ্ছেনা  অবৈধ ভাবে  বিদ্যুৎ সংযোগ। জানা যায়,  কিছু  অসাধু  লোক  দিনের পর দিন সেচ পাম্প ও অটোরিকশা চার্জের কারনে  শমশেরনগর ইউনিয়নের সোনা পুর   গ্রামে জুবের আহমেদ অবৈধভাবে পানি সেচের পাম্প চালানো সময় (১০ ফেব্রুয়ারী) বুধবার রাত ১১ ঘটিতার সময় পল্লি বিদ্যৎ অফিসে লোকজন  একটি পানির পাম্প জব্দ করা হয। এই বিষয়ে অবৈধ বিদ্যৎত সংযোগ লাইন চালানোর কারণে জানতে চাইলে জুবের আহমেদ বলেন এই নিয়ে দুইবার তিনি লক্ষ, টাকা জরিমানা দিতে হয়েছে।

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কমলগঞ্জ আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক গোলাম ফারুক বলেন, আমরা তাদেরকে চিঠি দিয়েছি এবং বিদ্যুতের লাইন থেকে তার গুলো সরিয়ে নেয়ার জন্য বলা হয়েছে পর্যায়ক্রমে সরিয়ে নিচ্ছে, কমলগঞ্জ এই পর্যন্ত আমরা অবৈধ ১৩ টি  বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে এবং জরিমানা নির্ধারণ করা হয়েছে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..