• সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:১১ অপরাহ্ন

“১৫ টাকায় ১৫ ধরনের উপকারীতা”

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ৬৭৯ বার পঠিত

 

বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের এটি বিভিন্ন নামে পরিচিত।যেমন, ঢাকায় বলে থানকুনি, চট্টগ্রামে বলে আদাগুগুনি আরো অন্যান্য অঞ্চলের মানকি,ঢোলামানি,মানামানি, তিতুরা,আদামনি,ধূলাবেগুন, কালাকূয়চা থুলকুড়ি ইত্যাদি। আর English এটিকে বলা হয় Centella asiatica.

থানকুনি পাতা এমন একটি পাতা যা শরীরে অভ্যন্তরিণ ও বাহিরের জন্য খুব উপকার।

আসুন জেনে নেয়া যাক ১৫ টাকায় ১ আটি থানকুনি পাতার ১৫ টি গুণাগুণ ও উপকারীতাঃ

(১) চুলে জন্য থানকুনি পাতার জুড়ি হয়না। থানকুনি পাতা খেলে বা বেটে মাথায় লাগালে চুল পড়া বন্ধ করে, চুলের উজ্জ্বলতা আনে,নতুন চুল গজায়।

(২) “”সবাই বলে বয়স বাড়ে আমি বলি কমে রে”‘ এই গান টা আমরা কম বেশি সবাই শুনেছি।থানকুনি পাতা খেলে ও ঠিক তেমন ই, বয়স বাড়বে কিন্তু চেহেরার লাবণ্য, উজ্জ্বলতা,মার্ধূয চিরকাল Teenage এর মতো থাকবে।

(৩) হজম শক্তি বৃদ্ধিতে থানকুনি পাতার জুড়ি নেয়।কেননা এটি ঔষধী গুন সম্পন্ন একটি পাতা।

(৪) থানকুনি পাতাকে ঔষুধী পাতা বলা হয় কারণ এটি পেটের বিভিন্ন রোগ নিরাময় করে।এগজিমা, হাঁপনি,আলসারসহ বিভিন্ন চর্মরোগের জন্য থানকুনি পাতা খেলে ভালো হয়ে যায়।

(৫)Gastric নাই এমন কম মানুষ পাওয়া যাবে। কম বেশি আমার সবাই gastric এ আক্রান্ত। থানকুনি পাতা gastric নিরাময় অসাধারণ ভূমিকা রাখে।

(৬)কাশি নিরাময় থানকুনি পাতা মহাঔষধের মত কাজ করে।বেশি না শুধু ১ সপ্তাহ খান থানকুনি পাতা নিজেই দেখুন কাশি গায়েব।

(৭)আমাশয় রোগে চিকিৎসা ও হয় এই পাতা দিয়ে।প্রতিদিন সকাল এ খালি পেটে থানকুনি পাতা খেলে আমাশয় সম্যসা দূর হয়।

(৮) বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে থানকুনি পাতা খেলে ৭০/৮০/৯০ বছরে ও আপনার যৌবন ২০ বছরের যুবকের মতই থেকে যাবে।

(৯)সর্দি জ্বর কমাতে থানকুনি পাতার উপকারীতা অপরিসীম।

(১০)দাঁতের জন্য মহা ওষুধ থানকুনি পাতা। থানকুনি পাতা খেলে দাঁত ব্যথা,দাঁত থেকে রক্ত ক্ষরণ, দাঁতে পোকা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

(১১)যে সব বাচ্চাদের কথা অস্পষট প্রতিদিন থানকুনি পাতার রস খাওয়ালে কথা পরিস্কার হয়ে যাবে।

(১২) থানকুনি পাতার খুব ভালো একটা গুন হলো এটি নিয়মিত খেলে স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি পায়।

(১৩) ক্ষত স্থানে থানকুনি পাতা বেটে লাগালে ক্ষত নিরাময় হয়। ক্ষত যদি অনেক পুরানোও হয় তা ও থানকুনি গুণে ক্ষত সেরে যায়।

(১৪) ঔষধের গুনে ভরপুর এই থানকুনি পাতা খেলে শরীর থেকে টক্সিক উপাদানগুলো বের হয়ে যায়।

(১৫) মাথা ব্যথা বা মাইগ্রেনের সম্যসা থেকে মুক্তি পেতে Lunch বা Dinner a থানকুনি পাতার ভর্তা খান।

আসুন জেনে নেই”””” থানকুনি পাতার ভর্তার”””” রেসিপিঃ

  

উপকরণঃ

★থানকুনি পাতার আটি ১ টি,
★রসূন ২ কোয়া,
★কাঁচামরিচ / শুকনামরিচ ২ টা
★পিয়াজ কুচি ১ টা মাঝারি,
★ সরিষা তেল ১ চামচ,
★লবণ পরিমাণ মত।

প্রস্তুতি প্রনালীঃ

থানকুনি পাতাকে কুচিকুচি করে কাটি।তারপর পিয়াজের সাথে শুকনো মরিচ বা কাঁচামরিচ কে হাত দিয়ে কচলিয়ে নেয়।এরপর রসূন, সরিষা তেল,লবণ দিয়ে মাখিয়ে নেয়। তৈরি হয়ে গেল খুব উপকারী ও মজাদার থানকুনি পাতার ভর্তা।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..