• শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন

নেপিয়ার ঘাস চাষে রংপুরের কৃষকরা লাভবান

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯
  • ৩৪০

মোঃ মমিনুর ইসলাম/বাংলারজমিন২৪

রংপুর ব্যুরোঃ খরচ কম লাভ বেশি হওয়ায় নেপিয়ার ঘাস চাষে ঝুঁকছে রংপুরের কৃষকরা। বিশেষ করে খামার মালিকেরা এই ঘাস চাষ করে গরুর চাহিদা মেটাচ্ছেন। ফিড সিন্ডিকেটের কারণে খরচ বেশি হওয়ায় এবং খামার গড়ে লাভ না হওয়ায় নেপিয়ার ঘাস ও খরের ওপর নির্ভরতা বাড়ছে। ফলে কম খরচে বেশি লাভের ঘাস চাষ বাড়ছে জেলার আট উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়।

দারিদ্র ও কর্মসংস্থানে পিছিয়ে থাকা রংপুর অঞ্চলে পশু পালনের মাধ্যমে বাড়ছে কর্মসংস্থান ও আত্মনির্ভরশীলতা। কিন্তু ফিড ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের কারণে লাভ করতে হিমশিম খাওয়ায় দানাদার খাদ্যের ওপর নির্ভরশীলতা দিন দিন কমছে। বাড়ছে নেপিয়ার ঘাস, খড় ও কুড়ার চাহিদা।

চাষি ও খামারি জানান, এখানকার শিক্ষিত বেকারেরা খামার গড়ে লাভবান হচ্ছেন। কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়েছে মানুষের। ফিড ব্যবসায়ীদের দৌরাত্বের কারণে খামারিরা গরুর দানাদার খাবার কমিয়ে দিয়ে নেপিয়ার ঘাস চাষ করছেন। খরচ কম হওয়ায় এবং তিনমাস পরপর বিক্রি করা যায়। স্বল্প পুঁজির অনেকেই বাড়িয়েছেন নেপিয়ার ঘাসের চাষ।

জেলার হাটবাজারগুলো প্রতি বোঝা নেপিয়ার ঘাস বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ২০ টাকা দরে।

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা শাহ জালাল খন্দকার জানান, দানাদার খাদ্যের ওপর নির্ভরতা কমিয়ে আনছেন খামারিরা। তারা প্রাকৃতিক উপায়ে গবাদি পশুর খাবার প্রস্তত করছেন। কাঁচা ঘাসে তাদের আগ্রহ বেশি বলে জানান এই কর্মকর্তা।

রংপুর ব্যুরো প্রধান

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..