• সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ১১:০৫ অপরাহ্ন

এরশাদের চল্লিশা হবে চাঁদার টাকায়  

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯
  • ১৩৫

 

 স্টাফ করেসপন্ডেন্ট/বাংলারজমিন২৪

জাতীয় পার্টির (জাপা) ফান্ডে টাকা নেই। তাই চাঁদা তুলে পার্টির সদ্যপ্রয়াত চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের চল্লিশায় গণভোজের আয়োজন করা হচ্ছে। আর এ জন্য পার্টির প্রত্যেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সংসদ সদস্যদের এক লাখ টাকা করে চাঁদা দিতে হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

শনিবার দলের বনানীর কার্যালয়ে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এমপিদের যৌথ সভায় এ চাঁদা নির্ধারণ করা হয় বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

এ প্রসঙ্গে এরশাদের প্রেস সেক্রেটারি ও পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায় বলেন, পার্টির তহবিলে টাকা থাকতেও পারে, নাও পারে। তবে বৈঠকে পার্টির প্রত্যেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সংসদ সদস্যদের এক লাখ টাকা চাঁদা নির্ধারণ করা হয়েছে। যে পারবে সে দেবে। আর যে পারবে না সে দেবে না।

তিনি আরো বলেন, বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ কার্যক্রমও পার্টির সদস্যদের চাঁদার টাকায় চলেছে। তবে এবারের চাঁদার টাকা শুধুমাত্র ঢাকা ও রংপুরের গণভোজ আয়োজনে ব্যয় হবে। কিন্তু পার্টির পক্ষে দেশের অন্যান্য জেলাগুলোর গণভোজের ব্যয় বহন করা সম্ভব হচ্ছে না।

এর আগে শুক্রবার জাতীয় পার্টির বনানী কার্যলয়ে এক মতবিনিময় সভায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, জাপার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মরহুম হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আগামী ২৩ আগস্ট দেশব্যাপী চল্লিশা পালন করা হবে। আর, প্রতিবছর ১৪ জুলাই তার মৃত্যুবার্ষিকী পালন করবো। যেহেতু, চল্লিশার অনুষ্ঠান এসে গেছে, এটি আয়োজন করতে দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। উপজেলা-জেলা পর্যায়ে নিজ নিজ উদ্যোগে দোয়া মাহফিল ও ভোজের আয়োজন করা হবে। এ বিষয়ে আমরা কেন্দ্রীয়ভাবে সহযোগিতা করবো।

জিএম কাদের আরো বলেন, নেতাকর্মীরা সবাই চায় অনুষ্ঠান থানা পর্যায়ে হোক। আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর বড় বড় অনুষ্ঠান হয়েছে। সামনের দিনগুলোতে বড় অনুষ্ঠান করলে আর্থিক সহযোগিতা করা কিছুটা মুশকিল হবে। আমরা মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি সব জায়গায় যেন অনুষ্ঠান করা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..