• সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৯:১৭ অপরাহ্ন

ঢাকা এখনও ফাঁকা

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৯
  • ১৮৬

ঢাকা এখনও ফাঁকা

বাংলারজমিন২৪/অনলাইন প্রতিনিধি-
রাজধানীতে পরিবার-পরিজন নিয়ে কর্মস্থলে ফেরা মানুষের ভিড় বাড়ছে। তবে যানজটের এই নগরীর বেশিরভাগ সড়ক এখনও ফাঁকা। পরিপূর্ণ সচল হয়নি ট্রাফিক সিগন্যাল। মার্কেট-বিপণিবিতান খুলতে শুরু করেছে। বসছে কাঁচাবাজার।

এদিকে বৃহস্পতিবার জাতীয় শোক দিবসের কারণে সরকারি অফিস-আদালত বন্ধ ছিল। তবে বেশিরভাগ সরকারি অফিসে দোয়া-মাহফিলের আয়োজন ছিল। বেসরকারি অনেক অফিস ও শিল্প-কারখানা বন্ধ। তাই ঢাকার রাস্তায় তেমন একটা ভিড় নেই।

তবে শোক দিবসের অনুষ্ঠানের কারণে নগরীর পাড়া-মহল্লায় মানুষের জটলা লক্ষ্য করা গেছে।

এদিকে রাজধানীর লঞ্চ, বাস টার্মিনাল ও নদীবন্দরে লোক সমাগম বেশি লক্ষ্য করা গেছে। ফেরি কম হওয়ায় শিমুলিয়া, কাওড়াকান্দি, পাটুরিয়াসহ অন্যান্য ঘাটগুলোতেও পরিবহনের কিছুটা বাড়তি চাপ আছে।

ঢাকায় ফেরা যাত্রীদের কাছ থেকে টিকেট যুদ্ধ ছাড়া তেমন কোন ভোগান্তির অভিযোগ পাওয়া যায়নি। শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন টার্মিনাল ঘুরে যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সড়ক পথে আসতে তেমন কোন সমস্যা নেই।

তবে ধীরে ধীরে ঝানজট বাড়ছে বলে জানিয়েছে তারা। কোনো কোনো রুটে বাড়তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ করেছেন যাত্রীরা।

গাবতলী বাস টার্মিনালে উত্তরবঙ্গের যাত্রীরা আসছেন দলে দলে। আমিনবাজার ব্রিজ থেকে আসাদগেট পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশে বিভিন্ন কাউন্টারের সামনে যাত্রীদের নামতে দেখা গেছে।

শ্যামলী, এসআর ট্রাভেলস, ডিপজল পরিবহন, হানিফসহ বিভিন্ন কাউন্টারে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঢাকায় ফেরা মানুষের চাপ বেড়েছে। তবে ঘরে ফেরা মানুষের চাপ কমছে।

আসার পথে যাত্রী চাপ বাড়ছে। দেশের পূর্বাঞ্চল থেকে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে আসা মানুষের ভিড়ও দেখা গেছে চোখে পরা মতো।

এদিকে ঢাকা নদীবন্দরেও দিন দিন ভিড় বাড়ছে মানুষের। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা লঞ্চগুলোর কিছুটা শিডিউল বিপর্যয়ের ঘটনা ঘটেছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

সদরঘাট লঞ্চটার্মিনালে গিয়ে দেখা গেছে, লঞ্চগুলো প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত যাত্রীবহন করে নিয়ে আসছে। এজন্য কেউ কেউ লঞ্চ মালিকদের দোষারোপ করেছেন।

কমলাপুর রেলস্টেশনে বেশিরভাগ ট্রেন আসছে সময়মতো। তবে টিকেট পেতে মানুষের হিমশিম খেতে হচ্ছে। এসময় স্টেশনে মানুষের ভিড় দেখা গেছে চোখে পড়ার মতো।

আগামী রোববার থেকে সরকারি-বেসরকারি অফিস পুরোদমে জমে উঠবে। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ধাপে ধাপে খুলবে। এর মধ্য দিয়ে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে পাবে রাজধানী ঢাকা।

তবে ঈদের ছুটিতে নগরীর বিনোদন কেন্দ্র, সিনেমা হল, পার্ক ও উন্মুক্ত স্থানে মানুষের ভিড় থাকলেও এবার বৃষ্টির কারণে খুব বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..