• বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:৩৬ অপরাহ্ন

কমলগঞ্জে মণিপুরী আদিবাসী ফোরামের উদ্যোগে ২২০০ কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৪৮ বার পঠিত

আলমগীর হোসেন,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বাংলাদেশ মণিপুরী আদিবাসী ফোরামের উদ্যোগে ২০১৭-১৮ সালের পিইসি, জেএসসি ও জেডিসি এবং ২০১৯-১৯ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ২২০০ কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

গতকাল বুধবার (০৯ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার রানীরবাজারস্থ দয়াময় সিংহ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ অনুষ্ঠান হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা: মোর্শেদ আহমেদ চৌধুরী। শুভ উদ্বোধন করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ এর বোর্ড অব গভর্নস এর গভর্নর মিছবাহুর রহমান চৌধুরী।

বাংলাদেশ মণিপুরী আদিবাসী ফোরামের সহ সভাপতি মো: আব্দুল মজিদের সভাপতিত্বে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মণিপুরী আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সমরজিত সিংহ। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট শাহাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড: আব্দুল আউয়াল বিশ্বাস, সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র, ঢাকাস্থ জালালাবাদ এসোসিয়েশন এর সভাপতি ড. এ কে আব্দুল মুবিন, সিলেট লিডিং ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার বনমালী ভৌমিক, ঢাকাস্থ মৌলভীবাজার সমিতির সভাপতি ড. সৈয়দ মোস্তাক আহমেদ, কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান, কমলগঞ্জ সরকারি গণ মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ কামরুজ্জামান মিঞা, পুলিশ হেড কোয়াটার ঢাকা এর সহকারি পুলিশ সুপার লিপি রানী সিনহা, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিস বেগম, মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ মো. হেলাল উদ্দিন, কমলগঞ্জ থানার ওসি মো. আরিফুর রহমান, বাংলাদেশ মণিপুরী সমাজকল্যাণ সমিতির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনন্দ মোহন সিংহ, শমশেরনগর আইডিয়াল কিন্ডারগার্টেন স্কুলের অধ্যক্ষ সাংবাদিক মুজিবুর রহমান রঞ্জু। ও শিক্ষক সুশীল কুমার সিংহের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দয়াময় সিংহ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ইউপি সদস্য রুপেন্দ্র কুমার সিংহ, ইসলামিক ফাউ-েশন, কমলগঞ্জ এর ফিল্ড সুপারভাইজার ইকবাল হোসেনচৌধুরী, সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, সাংবাদিক শাহীন আহমেদ, উপজেলা স্কাউটস সম্পাদক মোশাহীদ আলী, প্রধান শিক্ষক সুজিতা সিনহা, কৃতি শিক্ষার্থী সুব্রত কুমার সিংহ, শাহরিয়ার আহমদ মাহী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে কৃতি শিক্ষার্থীকে সার্টিফিকেট, কলম ও অভিধান প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, আজকের শিক্ষার্থী আগামী দিনের কর্ণধার। তারা আগামীতে দেশ ও জাতিকে নেতৃত্ব দিয়ে বিশ্বের কাছে মাথা উঁচু করবে। আর এজন্য তাদের অর্জনকে স্বীকৃতি দিতে হবে। স্বীকৃতি পেলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনুপ্রেরণা বৃদ্ধি পায়। তারা নতুন উদ্যেমে আরো সৃজনশীল কাজে নিজেকে আত্মনিয়োগ করে। শিক্ষার্থীদের এই সংবর্ধনার মাধ্যমে যেমন আনন্দ ও উৎসাহ বিরাজ করবে এবং লেখাপড়ার প্রতি তাদের আরো স্পৃহা উদ্দিপনা তৈরি হবে। তাদেরকে সম্মানের মাধ্যমে সঠিকরুপে মাদকাসক্তি ও অসামাজিক কার্যকলাপ থেকে দূরে রেখে নৈতিক শিক্ষা দিয়ে বড়ো করে তোলা আমাদের সকলের দায়িত্ব।
বক্তারা

আরো বলেন, শিক্ষার্থীদেরকে শুধু পুঁথিগত বিদ্যায় শিক্ষিত হলে হবে না। পাঠ্য পুস্তকের পাশাপাশি তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ে ব্যাপক শ্রম দিতে হবে। তা না হলে প্রতিযোগিতার বিশ্বে টিকে থাকা অসম্ভব। শিক্ষার পাশপাশি তাদের মধ্যে মানবিক গুণাবলির সঠিক চর্চা করতে হবে। এতে তারা শিক্ষিত মানুষের পাশাপাশি একজন ভাল মানুষে পরিণত হবে। বর্তমান বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হলে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। নৈতিকতাবোধ এবং আদর্শকে বুকে ধরে শিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে উন্নত দেশ গড়ার শপথ নিতে হবে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..