• বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:৪০ অপরাহ্ন

কুমারী মেয়েকে সিঁদুর লাগানোকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত জখম ১

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৯
  • ১৩০ বার পঠিত

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গা জেলা সদর সহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় বিজয়া দশমীর দিনে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটলেও দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা আদিবাসী পাড়ায় কুমারী মেয়েকে সিঁদুর লাগানোকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে সঞ্জয়(২৩) রক্তাক্ত জখম হয়েছে।মঙ্গলবার সন্ধায় কার্পাসডাঙ্গা আদিবাসী পাড়ায় এই ঘটনা ঘটেছে।

ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত জখম হওয়ায় কতব্যরত চিকিৎসক রাজশাহী রেফার করেন।

জানা গেছে,মঙ্গলবার ছিলো বিজয়া দশমীর দিন মেয়েদের কপালে একে অপরে সিঁদুর দেওয়া সহ মুখে রং মাখামাখি করে।কিন্তু কোন কুমারী মেয়ের কপালে সিঁদুর লাগানো যাবেনা।সে বাধা অতিক্রম করে আদিবাসী পাড়ার নির্মলের ছেলে সঞ্জয় একই পাড়ার ছোটমনির মেয়েকে রং ও সিঁদুর মাখিয়ে দেয়।বিষয়টি মেয়ের মা দেখে ফেলে।পরে সঞ্জয়কে নিষেধ করলে সঞ্জয় রেগে গিয়ে মেয়েটির মায়ের গালে চড় মারে। পরবর্তীতে আবারো রাত সাড়ে ৬টার দিকে বাঘাডাঙ্গার সড়কে প্রতিমা বির্সজনের সময় ও মেয়েটির মুখে রং লাগিয়ে গায়ে ধাক্কা মারে সঞ্জয়।বিষয়টি নিয়ে আবারো মেয়েটির মা প্রতিবাদ করলে তাকে আবারো চড় মারে। পাশেই থাকা মেয়েটির ভাই পরান ক্ষিপ্ত হয়ে সঞ্জয়কে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।

ঘটনার পর পরই সঞ্জয় কে চিকিৎসার জন্য দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা বেগতিক দেখে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে রেফার্ড করে দেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: শাহানা আহাম্মদ জানান, ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত জখম রোগীর অবস্থা ক্রমেই অবনতি হওয়ায় তাকে রাত ৯টার দিকে রাজশাহী রেফার করা হয়।

এমন অপ্রীতিকর ঘটনায় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সচেতন মহলের একাধিক ব্যাক্তি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার মোঃজাহিদুল ইসলামের চৌকস ভূমিকায় জেলার কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটলেও কার্পাসডাঙ্গার মত জায়গায় এ ঘটনা ঘটা মানে চরম আইন শৃংখলার অবনতি!

তারা আরো বলেন,ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ এসআই সাইফুল ইসলাম যোগদানের পর এ এলাকায় একাধিক চুরি সহ ছোট খাটো দূর্ঘটনা ঘটেই চলেছে।

কার্পাসডাঙ্গা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই সাইফুল জানান, মরারমারির ঘটনা শুনে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।ছুরিকাঘাতে আহতকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।এখনো পযন্ত কেউ কোন অভিযোগ বা মামলা করেনি।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..