• বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন

ফাহাদ হত্যার মাধ্যম কি ছিল জানালেন ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৮ অক্টোবর, ২০১৯
  • ২৭ বার পঠিত

ঢাবি প্রতিবেদক:

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক। ঢাকা মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সোহেল মাহমুদ ময়নাতদন্তের পর সোমবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে এ কথা জানান।

ময়নাতদন্তে আবরারের দেহে আঘাতের অনেক চিহ্ন পাওয়া গেছে বলে জানান ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক সোহেল মাহমুদ।

তিনি জানান,‘বুয়েট ছাত্র ফাহাদের মৃতদেহ পুলিশ আমাদের কাছে নিয়ে আসে। ময়নাতদন্তে আমরা তার শরীরে অনেকগুলো আঘাতের চিহ্ন পাই। আঘাতের কারণে ফাহাদের শরীলে এই দাগগুলো হয়।’

এসময় সাংবাদিকরা কী দিয়ে আঘাত করা হতে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ফাহাদকে স্ট্যাম্প, বাঁশ, লাঠি মতো ফাঁপা কিছু দিয়ে আঘাত করা হতে পারে। ফাহাদের হাতে, পায়ে এবং পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এই ধরনের আঘাতে কারও মৃত্য হতে পারে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘তার শরীরে ‘এক্সেসিভ’ আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এই ধরণের আঘাতে মারা যেতে পারে। ফাহাদের হাতে, পায়ে এবং পিঠে অনেক আঘাত করা হয়েছে। এর থেকে রক্তকরণ হয়ে সে মারা গেছে।’

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..